UIU-কে মনেই হচ্ছে না দেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয়: একান্ত সাক্ষাৎকারে জনৈক চিত্রনায়ক

৩৯১ পঠিত ... ১৭:১৭, এপ্রিল ২১, ২০২৪

34 (4)

ছাত্র-ছাত্রীদের গরম থেকে একটু স্বস্তি দিতে ক্যাম্পাসে পানি ছিটানোর ব্যবস্থা করেছে UIU কর্তৃপক্ষ। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে অনেকে এসে ভিজছেনও ক্যাম্পাসের মাঠে। এই ঘটনা সাধারণের পাশাপাশি আলোড়ন তৈরি করেছে দেশের সেলিব্রেটি মহলেও। ইউরোপ বিশেষজ্ঞ এক চিত্রনায়ক ঘটনাটি দেখে UIU-কে ইউরোপের বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবেও আখ্যায়িত করেছেন। বিষয়টি নিয়ে অনুভূতি জানতে earki টিম গিয়েছিলো ভাইয়ের বাসায়।

 

প্রতিবেদক: ভাই কেমন আছেন? ইউরোপ থেকে কবে ফিরলেন?

চিত্রনায়ক:  ইউরোপ থেকে কবে ফিরলাম মানে? আমি কি ইউরোপ থাকি নাকি? এমন খোঁচা মেরে কথা বলার কারণ কী?

 

প্রতিবেদক: আরে খোঁচা মারব ক্যানো? আপনি ভুল বুঝতেছেন ভাই, আপনার ইউরোপ-প্রীতির জন্য সাধারণ মানুষ ভাবে আপনি সেখানকারই নাগরিক।

চিত্রনায়ক:  সাধারণ মানুষ ভাবে না আপনারা ভাবান? যাই হোক যে কাজে এসেছেন সেটা বলেন।

 

প্রতিবেদক:  আচ্ছা ভাই আপনি দেশের সবকিছুতেই ইউরোপের ছোঁয়া পান কেন?

চিত্রনায়ক:  দেশ ইউরোপ হলে ইউরোপের ছোঁয়া পাব না তো কীসের পাব? আফ্রিকার?

 

প্রতিবেদক: সেটা বলছি না… এই যে একবার বললেন চট্রগ্রামের রাস্তা ইউরোপের মতো, আবার আজকে বলছেন UIU-কেও নাকি ইউরোপিয়ান লাগছে।

চিত্রনায়ক:  হ্যাঁ, লাগছেই তো! বিশ্বাস না হলে ইউরোপ গিয়ে দেখু্‌ সেখানেও গরমে দিনে এভাবে মানুষের গায়ে পানি ছিটিয়ে দেয়। তবে এবারের গরমে মনে হচ্ছে দেশ ইউরোপ না দুবাই হয়ে গিয়েছে। এখন শুধু কিছু ল্যাম্বরগিনি এনে ট্যাক্সি সার্ভিসে লাগিয়ে দিতে পারলেই হবে।

 

প্রতিবেদক: বাহ! দারুণ বুদ্ধি। তা ভাই আপনি এবার নির্বাচনে দাঁড়ালেন না কেন?

চিত্রনায়ক:  দাঁড়াতে চেয়েছিলাম, সে সময় বেশ শীত ছিলো, সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারি নাই। সামনের নির্বাচনে চিন্তাভাবনা আছে, দেখি কী হয়।

৩৯১ পঠিত ... ১৭:১৭, এপ্রিল ২১, ২০২৪

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

স্যাটায়ার


Top