না পড়েই রিভিউ ১ : আদনান মুকিতের 'ডিগবাজি' যে কারণে পড়বেন, কিনবেন ও মারবেন

৪২৭ পঠিত ... ১৮:৩৭, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

এবারের বইমেলা উপলক্ষে একজন অপাঠকের বিশেষ বই-রিভিউ সিরিজ- না পড়েই রিভিউ। এই ফেসবুকময় জীবনে বই পড়ার অত সময় কই? বই যদি কিনিও, তা তো বছরখানেকের মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে ধীরে সুস্থে কয়েক যুগ ধরে পড়তে হবে। কিন্তু চলছে বইমেলার মাস, দারুণ সব বই প্রকাশিত হচ্ছে। ধীরেসুস্থে পড়বো বলে কি বই কিনবো না আর রিভিউও দেবো না? এজন্যই বাজারে এলো 'না পড়েই রিভিউ'! আগে দর্শনধারী, তারপর গুণবিচারী, এইরকম একটা বাক্য প্রচলিত আছে। আমি নাহয় আগে 'দর্শন' (দেখা এবং ফিলসফি) সংক্রান্ত কথা বলি, আপনারা কিনে এবং পড়ে গুণবিচার করবেন।

না পড়েই রিভিউ সিরিজের প্রথম এন্ট্রি: আদনান মুকিতের প্রথম বই ডিগবাজি

প্রসঙ্গত, এই বইটির আগেও আদনান মুকিতের অনেক বই ছিল। ক্লাস ওয়ান থেকে ফাইভ পর্যন্ত স্কুলে বাংলা পাঠ্য 'আমার বই'সহ আরও প্রচুর বইয়ের মালিক তিনি ইতোমধ্যে হয়েছেন, অনেক বই মেরে দিয়েছেন বলেও বন্ধু-মারফত অভিযোগ পাওয়া যায়। তবে আদনান মুকিতের লেখা এটিই প্রথম প্রকাশিত বই। যদি কোনো অপ্রকাশিত বই থাকে, আমরা আদনান মুকিতের মৃত্যুর পর তা জানতে পারবো।

রিভিউয়ের শুরুতেই একটি সংক্ষিপ্ত লেখক পরিচিতি। যারা নিয়মিত সেই আদিম যুগ থেকে রস+আলো পড়তেন, তারা আদনান মুকিতের সঙ্গে নিশ্চয়ই পরিচিত। যারা সেই শুরু থেকে রস+আলো পড়তেন না কিন্তু পরে পড়েছেন, তারাও আদনান মুকিতের 'নাম তো সুনা হি হোগা'। যারা কখনোই রস+আলো এবং এমনকি আদনান মুকিতের কোনো লেখা পড়েননি, ডিগবাজি তাদের জন্য অবশ্যপাঠ্য... কারণ আদনান মুকিতের সাথে পরিচিত হওয়ার এর চেয়ে ভালো সুযোগ সাম্প্রতিক সময়ে পাবেন না!

বইটির নাম মূলত লেখকের লেখক-সুলভ বৈশিষ্ট্য প্রকাশক। বছরের পর বছর ধরে পাঠক, গুণমুগ্ধ পাঠক, ফেসবুক-মুগ্ধ পাঠক এবং আপামর ভাই-ব্রাদাররা আদনান মুকিতকে বই প্রকাশ করার অনুরোধ করে যাচ্ছেন। আদনান মুকিত কৃতিত্বের সঙ্গে ডিগবাজি দিয়ে যাচ্ছেন। অতঃপর 'বই বের করবো না' পরিস্থিতি থেকেও আরেক দফা ডিগবাজি মেরে বাংলা সাহিত্যের আকাশে ৭৬ বছর পর আসা এক ধূমকেতু হয়ে বাজারে এলো তার প্রথম বই।

নাম দেখে তাই আত্মজীবনীমূলক মনে হলেও, এটি একটি রম্যগল্পের বই। একুশে ফেব্রুয়ারির সঙ্গে একেবারেই কোনো সম্পর্ক না থাকলেও বইটিতে রম্যগল্প রয়েছে ২১টি।

প্রশ্ন করতে পারেন, ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপে বিভিন্ন ভাইরাল হওয়া লেখা পড়লেই তো নিয়মিত রম্যগল্প পড়া হয়ে যায়, রম্যগল্প কিনে কেন পড়বো? এই প্রশ্নের ১০১টা উত্তর আছে। আমি ৩টা উত্তর দিচ্ছি।

১. আপনি তো দারুণ রম্যগল্প পড়তে চান, তাই না?
২. আপনি তো আদনান মুকিতের রম্যগল্প পড়তে চান, তাই তো?
৩. আদনান মুকিত রম্যগল্প ফেসবুকে মূলত অনলি মি প্রাইভেসি দিয়ে লেখেন। ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করার চেয়ে সেক্ষেত্রে বই কিনে পড়া সহজ।
(এই বইটিও আদনান মুকিত অনলি মি প্রাইভেসি দিয়ে প্রকাশ করতে চেয়েছিলেন। এরকম কোনো সিস্টেম না থাকায় পাবলিক করে শেয়ার দিতে হলো।)

বিভিন্ন সময়ে লেখা লেখকের এই গল্পগুলো আপনার একটানা বসে পড়ার দরকার নেই। বইটি ছোটখাটো, 'হ্যান্ডি' বলতে পারেন। ব্যাগে নিয়ে ঘুরলে বাসে যখন পাশের সিটের ছেলেটা কনডাক্টরের সাথে স্টুডেন্ট ভাড়া নিয়ে ঝগড়া করবে, তখন সেই বিরক্তি থেকে পালাতে টুপ করে ডিগবাজির একটা রম্যগল্প পড়ে ফেলতে পারেন। ফেসবুকের হোমপেজে যখন ঘন্টার পর ঘন্টা স্ক্রল করেও পড়ার মতো কিছুই পাচ্ছেন না, ডিগবাজি থেকে দুটো গল্প পড়ে ফেললে সেই ক্ষতিও পুষিয়ে নিতে পারবেন!

আমি গত দুই সপ্তাহ ধরে ডিগবাজি ব্যাগে নিয়ে ঘুরছি। ভূমিকা, উৎসর্গপত্র, ফ্ল্যাপ, লেখক পরিচিতি, সূচিপত্র সব পড়া শেষ। না পড়েই রিভিউ করবো বলে এখনও পড়া শুরু করিনি। পোস্টটা দিয়েই একটা গল্প পড়ে ফেলবো ভাবছি।

তাই যতটুকু পড়েছি সেখান থেকে একটা অংশ তুলে দিলাম-

'উৎসর্গ-
ঝালমুড়ি-চানাচুরওয়ালা মামাদের
ভবিষ্যতে বইটা তাদেরই কাজে আসবে।'

মূল বই বাদে বাকি অংশের সবটা পড়ে আমি শিখেছি, এই বইয়ে শিক্ষণীয় বিষয় কম। প্রতিদিনের আটপৌরে জীবনে (ইয়েস আমি এটলিস্ট একটা রিভিউ টাইপ ভারি শব্দ ব্যবহার করসি!) নানারকম প্যারায় আপনার যতরকম 'শিক্ষা' হয়ে যায়, সেসব শিক্ষা থেকে অবসর খুঁজে পাবেন বটে!

বইটা প্রকাশ করেছে eআরকি। প্রচ্ছদ করেছেন মাহাতাব রশীদ (প্রচ্ছদের কার্টুনে সে লেখককে আঁকতে গিয়ে বরাবরের মতো নিজেকেই এঁকেছে, সো তাকে চিনলে আপনি দেখেই বুঝবেন)। ১০৪ পৃষ্ঠার এই বইটির দাম বইয়ে লেখা ২৮০ টাকা, বইমেলায় এবং রকমারিতে ২৫% ছাড়ে দাম পড়বে ২১০ টাকা।

যদি বইমেলায় যান, 'বাতিঘর' অর্থাৎ স্টল ৪৪৩-৪৫ এ বইটি অবশ্যই খুঁজে পাবেন।
*'আদনান মুকিত' এর প্রথম বই নিয়ে ভবিষ্যতে গবেষণা শুরু হওয়ার আগেই এই তথ্যগুলো জানিয়ে দিলাম। এড়িয়ে যাবেন না প্লিজ, ৬০তম বিসিএসে কমন পড়তেও পারে! চিন্তা করেন, আদনান মুকিতের প্রথম বইটি কত পৃষ্ঠার, এত সহজ একটা প্রশ্ন যদি ভবিষ্যতে বিসিএসে আসলে না পারেন, মন খারাপ হবে না?

৪২৭ পঠিত ... ১৮:৩৭, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top