NO BRA DAY যে কারণে পালন করা হয়

২৪৮৯ পঠিত ... ২২:৩১, অক্টোবর ১৩, ২০২০

ব্যাপারটা হইচই ফেলে দেবার মতোই। অস্ট্রিয়ার নিকলসডর্ফ শহরে মধ্যযুগীয় এক দুর্গের মাঝে প্রত্নতাত্ত্বিকেরা একটি ব্রা'র সন্ধান পেয়েছেন কিছুদিন আগে। ধারণা করা হচ্ছে, এটিই পৃথিবীর প্রাচীনতম ব্রা। তৎকালীন ব্রা এর সাথে বর্তমান সময়ের ব্রা-এর উল্লেখযোগ্য মিল থাকলেও এই প্রাচীন অন্তর্বাসের বয়স কিন্তু প্রায় ৭০০ বছর!   

পৃথিবীর প্রাচীনতম ব্রা

লাইফ ম্যাগাজিন অনুসারে, প্রথম আধুনিক ব্রা আবিষ্কার করেন ফ্রান্সের হারমিনি ক্যাডোল, ১৮৮৯ সালে। প্রথমদিকের ক্যাটালগে তিনি হাজির হয়েছিলেন দুই খণ্ডের অন্তর্বাস নিয়ে, যেটা নারীদের স্তন ও নিচের লজ্জাস্থানের এক্সট্রা সুরক্ষা দিতে সাহায্য করতো। তিনি এর নাম দিয়েছিলেন Corselet Gorge.

তবে আজকের সময়ের কাপ ও স্ট্র্যাপ দ্বারা তৈরি ব্রা’গুলো আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্বে ব্যবহার শুরু হয় ৩ নভেম্বর, ১৯১৪ সালে। ক্যারেস ক্রসবি হলেন আধুনিক ব্রা এর প্রথম পেটেন্ট প্রাপক। তিনি এর নাম দেন ‘brassiere’।

১৩ অক্টোবর বিশ্বজুড়ে উদযাপিত হয় ‘নো ব্রা ডে’। তবে অনেক দেশ ও ব্যক্তিই এ দিনটিকে ঘিরে যৌনতা ও নারী দেহের উপরে শোষণসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা তোলেন। চলুন, জেনে নেয়া যাক কীভাবে এলো এই দিবসটি।

 

 

পেছনের ইতিহাস

No bra Dayর আসল ইভেন্টটি শুরু হয়েছিলো কানাডার টরন্টো শহরের প্লাস্টিক সার্জন ডা. মিচেল ব্রাউন এর মাধ্যমে। তখন এর নাম ছিলো শুধু  BRA Day. সে সময় প্রচুর সংখ্যক নারী স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হতেন এবং অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে স্তনচ্ছেদ করা হতো। যেটাকে ইংরেজিতে বলা হয় Mastectomy।

ব্রাউন লক্ষ্য করলেন যে, কানাডিয়ান অনেক নারী যাদের mastectomy করা হয়েছে, তারা পরবর্তীতে স্তনের পুনর্গঠন করানোর অস্ত্রোপচারে (Reconstruction) আগ্রহী নয়। 

তিনি স্তন পুনর্গঠন অস্ত্রোপচার (Breast Reconstruction Surgery) সম্পর্কে মহিলাদের আগ্রহী ও সচেতন করে তুলতেই ‘Breast Reconstruction Awareness Day (BRA day)’  প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

BRA দিবসের আরও উদ্দেশ্য ছিলো—

১# ব্রেস্ট ক্যান্সার স্ক্রিনিং সম্পর্কে জানানো, 

২# মহিলাদের স্তন ক্যান্সারের লক্ষণ সম্পর্কে সতর্ক করা

৩# নিয়মিত স্ব-পরীক্ষা করে ক্যান্সারের উপস্থিতি শনাক্ত করা। 

এই ইভেন্টটা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হয়েছিল ২০১২ সালে। ওই বছরে সারা পৃথিবীতে স্তন ক্যান্সারে আক্রান্তের সংখ্যা ছিলো ১.৭ মিলিয়ন! 

 

যেভাবে এলো NO BRA DAY

৯ জুলাই ২০১১ সালে অজ্ঞাতনামা ইন্টারনেট ব্যবহারকারী এনেসথেসিয়া ডোনার্স সর্বপ্রথম No Bra Day ইভেন্টটি তৈরি করেন। ২০১৩ পর্যন্ত দিবসটি এই দিনেই পালিত হয়। 

২০১৩ এবং ২০১৪ সালে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে ৯ জুলাই এবং ১৩ অক্টোবর দুটোকেই No bra day হিসেবে ঘোষণা দেওয়া হয়। পরবর্তীতে ‘স্তন ক্যান্সার সচেতনতা মাস" অক্টোবরের ১৩ তারিখকেই এই দিবস হিসেবে ফিক্স করা হয়। 

 

২০১২ সালে প্রায় ৪ লাখ ব্যক্তি নো ব্রা দিবসে অংশ নিয়েছেন। তাদের মধ্যে ২,৫০,০০০ জনই ছিলেন ফেসবুক থেকে। ২০১৭ সালে ৮২,০০০ নারী #nobraday হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে টুইটার এবং ইনস্টাগ্রামে ছবি আপলোড করেছেন।

ঐ বছরই নিউজিল্যান্ড, রোমানিয়া, মালয়েশিয়া, স্কটল্যান্ড, ভারত এবং ঘানাসহ ৩০টি দেশের নারীরা দিবসটি পালন করেছেন। অন্তত এই দিন মহিলারা যাতে তাদের স্তন ক্যান্সারের উপস্থিতি পরীক্ষা করেন সেজন্য ব্রা না পরার আহ্বান জানানো হয়।  

অনেক দেশ এবং ব্যক্তির কাছে এই দিবসটি যৌনতা এবং নারী দেহের প্রতি শোষণ হিসেবে পরিগণিত হলেও- সচেতনতা বৃদ্ধি, এবং স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধই এর উদ্দেশ্য। মানুষ যদি সচেতন হয়, স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে সবাই যদি কথা বলা শুরু করে, এই দিনের উদযাপনটা স্বার্থক হয়ে উঠবে তখনই।

২৪৮৯ পঠিত ... ২২:৩১, অক্টোবর ১৩, ২০২০

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

কৌতুক

রম্য

সঙবাদ

স্যাটায়ার


Top