বাস্তব যেখানে কল্পনার চেয়েও সিনেম্যাটিক

২১৬ পঠিত ... ১৭:৩৭, জুলাই ১১, ২০২৪

33

২০০৭ সালের মেসির একটা ছবি কিছুদিন ধরে বেশ ভাইরাল হয়েছে ইন্টারনেটে। মেসি একটা বাচ্চা ছেলের পাশে বসে আছে। নীল বাথ টাবে গোসল করানোর জন্য তাকে বসিয়ে রাখা হয়েছে। বাচ্চাটাকে কোলে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন এমন ছবিও দেখা যাচ্ছে।  

২০০৭ সালে মেসি সবে খেলা শুরু করেছেন, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে। বার্সেলোনার হয়ে এল ক্লাসিকোতে প্রথম হ্যাট্রিক করার সময়ের কাছাকাছি সময়ের ঘটনা এটা। মেসির বয়স তখন ২০ বছর। ততদিনে নিজের সক্ষমতার কথা বেশ ভালো ভাবেই জানান দিয়ে ফেলেছেন সারা বিশ্বের ফুটবল প্রেমিদের কাছে।

ছবিটা লামিন ইয়ামালের সাথে মেসির ফটোশ্যুটের ছবি। লামিন ইয়ামাল স্পেনের হয়ে চলতি ইউরোর সেমিফাইনালে ফ্রান্সের বিপক্ষে ঐতিহাসিক গোল করে নিজের অন্যন্য এক পরিচয় তৈরি করে নিয়েছেন। একই রাতে মেসিও গোল করেন কোপা আমেরিকায়।

২০০৭ এ ইউনিসেফের একটা দাতব্য প্রোগ্রামের জন্য পোস্টার বিলি করে স্পেনের মাতারো শহরে। এখানেই ইয়ামালের পরিবার থাকতেন। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছিল, যারা লটারিটা জিতবে তারা বার্সার খেলোয়ারদের সাথে ফটোশ্যুট করেতে পারবে।

ইয়ামালের পরিবার সেই লটারিটা কিনেছিলেন সেবার। ফাইনালি লটারির ড্র এর সময় দেখা যায়, তারা লটারিটা জিতেও গেছেন।

ইয়ামাল আর মেসির একত্রে গোল করার পর তার বাবা ইনস্টাগ্রামে মেসির সাথের ছবি আপলোড দিয়ে লিখেছেন, দুই লিজেন্ডের একত্রে যাত্রা শুরু। তিনি আরও লিখেছেন, মেসি খুবই লাজুক প্রকৃতির ছিলেন।

মেসি সেদিন নিজের লকার রুম থেকে বের হয়েছেন। ফটোশ্যুটের আয়োজন করা হয়েছিল অন্য একটা রুমে। একটা প্লাস্টিকের বাথ টাবে একটা শিশু বাচ্চাকে বসানো হয়েছে, মেসি বুঝেই উঠতে পারেননি আসলে কি করতে হবে। তিনি কখনও শিশুদের সাথে এমন ভাবে মেশেননি। তিনি তখন পর্যন্ত জানতেন না কীভাবে একটা শিশুকে হাতে ধরে কোলে নিতে হয়। 

ছবিটা তুলেছেন স্পেনের এসোসিয়েট প্রেসের ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার জোয়ান মনফোর্ট। গত সপ্তাহে মনফোর্ট দেখতে পান, একটা বাচ্চার সাথে মেসির ছবি ভাইরাল হয়েছে। তিনি নিশ্চিত করেন যে ছবিটা ইয়ামালের সেই ছোটো বেলার ছবিটাই।  

২১৬ পঠিত ... ১৭:৩৭, জুলাই ১১, ২০২৪

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

কৌতুক

রম্য

সঙবাদ

স্যাটায়ার


Top