বিদেশে প্রশিক্ষণ না নিয়েই পুকুর খনন করার ৮টি বিকল্প দেশি পদ্ধতি

৩৬৭ পঠিত ... ২০:১০, সেপ্টেম্বর ০১, ২০১৯

বরেন্দ্র অঞ্চলে ভূ-উপরিস্থ পানির ব্যবহার বাড়াতে পুকুর ও দীঘি খনন-পুনঃখনন করতে চায় সরকার। এজন্য নেয়া হয়েছে ৪২ মাস মেয়াদি একটি প্রকল্প। এ প্রকল্পের খনন কার্যক্রমের প্রশিক্ষণ নিতে বিদেশে যাবেন ১৬ জন। এতে খরচ হবে ১ কোটি ২৮ লাখ টাকা। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ১২৮ কোটি ১৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকা, যার পুরোটাই সরকারি অর্থায়নে করা হবে। খবর: বণিকবার্তা।

পুকুর খুঁড়তে এত টাকা খরচ, এতজনকে প্রশিক্ষণ? তাও আবার বিদেশে! তা না হয় হলো, কিন্তু পুকুর খননের কি বিকল্প কোনো পদ্ধতিই নেই? সরকারি চাকুরেরা ব্যস্ত থাকেন, ব্যস্ততার মধ্যে হয়তো তেমন ভাবতে পারেননি। আমরাই তাই মাথার ভেতর আইডিয়া খুঁড়তে খুঁড়তে ভেবে বের করেছি পুকুর খননের ৮টি বিকল্প পদ্ধতি। দেখুন, একটু চালাক হলে কত সহজেই কাজ হয়ে যাবে!  

 

১# সমতল ভূমিতে ডিনামাইট দিয়ে

পাহাড় ভাঙা বা খনি থেকে মূল্যবান বস্তু উত্তোলনের কাজে ডিনামাইট ব্যবহার করা হয়। বিদেশ থেকে পুকুর খনন করা শিখে আসতে যে খরচ, তার অনেক কম খরচে সমতল ভূমি ডিনামাইট দিয়ে উড়িয়ে পুকুর বানিয়ে ফেলা সম্ভব।

 

২# সোনালী ব্যাংকের সেই ‘খোদক’কে কাজে লাগিয়ে

সোনালী ব্যাংকে চুরি করতে মাটি খুড়ে ঢোকার চেষ্টা করেছিলেন যেই মহান ব্যক্তি, তার এই খোড়াখুড়ি প্রতিভা হুদাই অপচয় হচ্ছে। বরং তাকে সঠিক কাজে লাগালে দেশের সব পুকুর তার পক্ষে একাই খুড়ে ফেলা সম্ভব। এইজন্যই লোকে বলে, 

 

৩# এখানে গুপ্তধন আছে- এমন গুজব ছড়ানো

যেখানে পুকুর খুঁড়তে হবে, জাস্ট ফেসবুকে গুজব তুলুন যে ঐখানে গুপ্তধন পাওয়া যাবে। এলাকার সব লোক মিলে পুকুর তো পুকুর, নদী-সমুদ্র খুঁড়ে ফেলে কিনা সেটা দেখেন।

 

৪# পুকুরের জমিকে রাস্তা বানিয়ে ফেলুন

সম্ভাব্য পুকুরের জমিকে নতুন রাস্তা হিসেবে ঘোষণা করা যেতে পারে। তাহলে ওয়াসা এসে সংস্কার কাজের নামে পুকুরটি খুঁড়ে দিয়ে যাবে। ওয়াসাকে ডাকতেও হবে না, দেখবেন নিজেদের রাস্তা ওরা নিজেরাই খুঁজে নিয়েছে।

 

৫# পাথরে নাম লিখুন

পাথুরে ভূমিতে পুকুর খনন করতে চাইলে সেখানে নিজের নাম লিখতে হবে। কারণ মান্না দে’র গান থেকে আমরা জানি, ‘যদি পাথরে লিখো নাম, পাথর ক্ষয়ে যাবে।’

 

৬# পুকুরের মাটিকে ‘কয়লা’ নাম দিন

পুকুরের মাটিকে কয়লা নামে ডাকা শুরু করলে তা বড়পুকুরিয়ার কয়লার মতো বাতাসে উড়ে যাবে। পুকুর এবং পুকুর চুরি, টু ইন ওয়ান!

 

৭# বড় কোনো নেতার সাহায্য নিন

বড়সড় কোনো রুই-কাতলা টাইপ নেতাকে পদ দিলে সে নিজেই জবরদখল করে তার মৎস্য ভাই-ব্রাদারদের নিয়ে জমি জবরদখল করে নিয়ে তাতে পুকুর বানিয়ে সাঁতার কাটা শুরু করবে। 

 

৮# সবাই মিলে জোরে ফুঁ দিন/বাতাস করুন

পুকুর খননের প্রশিক্ষণ নিতে বিদেশ যাচ্ছেন ১৬ জন। এতজন মিলে ফুঁ দিতে থাকলে বা জোরে বাতাস দিলে এক মাসের মধ্যেই মাটি উড়ে পুকুর হয়ে যাওয়ার কথা!

 

বোনাস: পরীক্ষায় খারাপ করা শিক্ষার্থীদেরকে পুকুরের জমির উপরে একত্রিত করতে হবে। আশেপাশে তাদের পিতামাতাও উপস্থিত থাকবে। এবং এরপর লাউডস্পিকারে তাদের খারাপ রেজাল্ট নাম্বারসহ পড়ে শোনানো হবে। লজ্জায় তারা মাটি খুঁড়ে ভেতরে চলে যেতে চাইবে। এতে করে পুকুর খোঁড়ার কাজও হয়ে যাবে।

৩৬৭ পঠিত ... ২০:১০, সেপ্টেম্বর ০১, ২০১৯

Top