মোবাইলচোর যে কারণে আমার স্ত্রীকে মেসেজ পাঠাতে বাধ্য হলো

৪৮৬ পঠিত ... ০৫:১৯, নভেম্বর ১১, ২০১৯

অলংকরণ: সালমান সাকিব শাহরিয়ার

অফিস যাবার পথে এক ভদ্রলোকের মোবাইল হারিয়ে গেল। অফিস পৌঁছে কাজের চাপে তিনি মোবাইলের কথা ভুলেই গেলেন।

অতঃপর বিকেলে বাড়ি ফিরে তিনি এক ভয়ানক পরিস্থিতিতে পড়লেন।

বাড়িতে শ্বশুর-শাশুড়ি সশরীরে উপস্থিত। শুধু তাই নয়, কেঁদে কেঁদে স্ত্রীর চোখ রক্তবর্ণ। আর দরজার পাশে ব্যাগ, স্যুটকেস গুছিয়ে রাখা। চলে যাবার প্রস্তুতি।

আশ্চর্য হয়ে ভদ্রলোক জানতে চাইলেন, 'কী হয়েছে?'

স্ত্রী কাঁদতে কাঁদতে নিজের মোবাইলে স্বামীর ফোন থেকে পাওয়া মেসেজ দেখালেন। লেখা রয়েছে, ‘আজ থেকে আমি তোমাকে ত্যাগ করলাম।’

অফিস যাবার পথে নিজের মোবাইল হারিয়ে যাবার বিষয়টি ভদ্রলোক বুঝিয়ে বললেন। অর্থাৎ তিনি কিছুতেই এই মেসেজটি পাঠাতে পারেন না। কিন্তু স্ত্রীর কান্না আর থামে না।

অতঃপর ভদ্রলোক স্ত্রীর মোবাইলের লাউড স্পিকার অন করে নিজের হারিয়ে যাওয়া মোবাইল নম্বরে ফোন করলেন।

ওপাশ থেকে একজন লোক ফোনটি ধরল।

: আপনি কি আমার মোবাইলটি পেয়েছেন?
: হ্যাঁ।
: আমার স্ত্রীর কাছে আপনি মেসেজ পাঠিয়েছন?
: হ্যাঁ।
: কেন?
: মশাই, আপনার স্ত্রী মেসেজ করে করে আমার মাথা খারাপ করে দিয়েছে ।
-কোথায় আছ?
-অফিস গেছো?
-কী করছো?
-উত্তর দিচ্ছ না যে...
-কাজ কি বেশি?
-কখন আসবে?
-আসার সময় এই এই জিনিসগুলো নিয়ে এসো।
-তাড়াতাড়ি এসো।
-আর শোনো, ওটাও নিয়ে এসো।
-অফিস থেকে সোজা বাড়ি এসো। আবার আড্ডা দিতে চলে যেও না।
-ক’টায় আসছো?
-অফিস থেকে বেরুবার সময় ফোন দিও।
-আমি কিন্তু ফোনের অপেক্ষা করব।
-কোন উত্তর দিচ্ছ না কেন?
আমার মাথা খারাপ করে দিয়েছে আপনার স্ত্রী। মূহুর্তে মূহুর্তে মেসেজের আওয়াজ। রোজ রোজ আপনি এসব সহ্য করেন কী করে? তাই, শেষ অব্দি আমি বাধ্য হয়ে ত্যাগ করার কথা লিখে দিলাম। তারপর গিয়ে মেসেজ আসা বন্ধ হলো...

লেখা: জাইয়েদী হাসান মাসুদুল

৪৮৬ পঠিত ... ০৫:১৯, নভেম্বর ১১, ২০১৯

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top