প্রেম না হওয়ায় পোড়ালেন চারিত্রিক সনদ, পোড়ানোর পরই হাজার হাজার প্রস্তাব

৩২৬ পঠিত ... ১৬:১৩, মে ৩০, ২০২৩

Prem-na-howay

বছর বছর ধরে কোনো প্রেমের প্রস্তাব পাচ্ছিলেন না রাইয়ান নামের তরুণ। ডিপ্রেশনে দিনের পর দিন ভোগার পরেও খুঁজে পাচ্ছিলেন না কোনো সলিউশান। অবশেষে তার ডিপ্রেশনের দরজা ঠেলে ঘরে ঢুকলো, আগুন। এই আগুনের সাহায্যে তিনি পুড়িয়ে ফেললেন নিজের চারিত্রিক সনদ। অতঃপর এখন পাচ্ছেন হাজার হাজার প্রেমের প্রস্তাব এমনকি কেউ কেউ তাকে দিচ্ছেন বিয়ের প্রস্তাবও!

 

এ বিষয়ে রাইয়ান আমাদের জানান, ‘আমি খুব দুঃখ, কষ্ট পেয়ে নিজের সনদ পোড়ানোর সিদ্ধান্ত নেই। তবে আমি এক আপুর মাধ্যমে আগে লাইভে যাওয়ার ব্যাপারটা জেনে রেখেছিলাম। পরবর্তীতে আমি লাইভে যেয়ে নিজের দুঃখ সবাইকে বলতে বলতে আমার সনদগুলো পুড়িয়েছি। পরেরদিন ঘুম থেকে উঠে দেখি, দেশ-বিদেশ, তরুণ এমনকি তরুণী সবাই আমাকে প্রেমের প্রস্তাব দিচ্ছে। শুধু প্রেমের প্রস্তাব না অনেকে এখন আমাকে গাড়ি, বাড়ি, বাইক সবকিছু দিয়ে বিয়েও করতে চাচ্ছে।‘

জানা যায়, রাইয়ানের দেখাদেখি শহরের বাকি তরুণ, তরুণীরাও নিজেদের চারিত্রিক সনদ পুরানোর দিকে ঝুঁকে যাচ্ছেন। এর মধ্যে কিছু তরুণ জানিয়েছেন, সবার প্রেমের প্রস্তাব লাগবে না। সনদ পোড়ানোর পর আমার ক্রাশ আমাকে একবার প্রস্তাব দিলেই হবে। আমি আজীবন ওর প্রস্তাবের জন্যই পথ চেয়ে বসে ছিলাম।‘

এদিকে এক গোপন সূত্রে জানা গেছে, রাইয়ানের জন্য বিদেশী মেয়েরা ভিড় জমাচ্ছে বেশি। তাদের স্লোগান হচ্ছে, ‘পোড়ানোর টানে দেশে আসলেন ব্রিটিশ ন্যান্সি।‘  

৩২৬ পঠিত ... ১৬:১৩, মে ৩০, ২০২৩

Top