টাকা নেই, বাড়িভাড়া তুলে কোনোমতে চলি: কাল্পনিক সাক্ষাৎকারে তাসকিম এ খান

৫১০ পঠিত ... ১৭:৩১, জানুয়ারি ০৯, ২০২৩

টাকা-নেই

একটি-দুটি নয়, ১৪ বাড়ি! দেশে নয়, সুদূর যুক্তরাষ্ট্রে। ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী তাকসিম এ খান যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক শহরে কিনেছেন এসব বাড়ি। সব বাড়ির দাম টাকার অঙ্কে হাজার কোটি ছাড়াবে। দেশ থেকে অর্থ পাচার করে তিনি এসব বাড়ির মালিক হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। (সূত্র: দৈনিক সমকাল)

তবে সব অভিযোগ অস্বীকার করে তাকসিম বলেছেন তার কাছে কোনো টাকা নেই৷ তিনি কোনোমতে চলেন বাড়িভাড়া তুলে।

তাহলে ১৪ টি বাড়ির কথা কীভাবে এলো, এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, 'বাড়ায়ে বলা বাঙালির অভ্যাস। নারিন্দায় ১৪ তলা বিল্ডিং-এ আমার একটা ফ্ল্যাট আছে। ওইটারেই সাংবাদিকরা খবরে আনছে এইভাবে।'

এগুলাকে ক্লিকবেইট হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, '১৪টা বাড়ি, যুক্তরাষ্ট্র, এসব দেখলে মানুষ দ্রুত লিংকে ক্লিক করে। বোঝেন নাই?'

বাড়িওয়ালাদের কষ্ট কেউ দেখে না, এমন আক্ষেপ প্রকাশ করে তিনি আরও বলেন, 'বাড়িভাড়া চাইতে গেলেই ভাড়াটিয়া সময় চায়। আমরা যারা বাড়ি ভাড়া দিয়ে চলি, তাদের কষ্ট তো পত্রিকায় লেখা হয় না। খবরে এসব আসে না।'

বিদেশে টাকা পাচার করেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি মোবাইল বের করে বলেন, 'এই দেখেন বিকাশ। এইটা ছাড়া টাকা পাঠানোর আর কোনো সিস্টেম আমার জানা নাই৷ বাড়িভাড়াও নিই বিকাশে।'

আদার ব্যাপারি হয়ে জাহাজের খবর কেন নেবো, এমন প্রশ্ন তুলে তাকসিম বলেন, 'বাড়ি ভাড়া আনি, বাড়ি ভাড়া খাই। ভাড়া না পাইলে ফোনে রিচার্জও করতে পারি না।'

এমন সময় তার ফোনে ভাড়াটিয়ার কল আসলে তিনি, ইংরেজিতে কথা বলতে শুরু করেন। তাকে 'সেন্ড মি দ্য রেন্ট অ্যাসাপ!' বলে চিৎকার করতেও দেখা যায়।

বি.দ্র: এই সাক্ষাৎকার সম্পূর্ণ কাল্পনিক। কেউ সত্য বলে গ্রহণ করলে সেটা তার মস্তিষ্কপ্রসূত বলে গণ্য করা হবে।

৫১০ পঠিত ... ১৭:৩১, জানুয়ারি ০৯, ২০২৩

Top