রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর নোয়াখাইল্লা হলে 'সোনার তরী' কবিতাটি যেমন হতো

২২১১ পঠিত ... ১৭:০১, আগস্ট ৩১, ২০২০

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর যে নোয়াখাইল্লা ছিলেন না, তা আমরা জানি। কিন্তু তিনি যদি নোয়াখাইল্লা হতেন? অন্য সব সাহিত্যগুলো নিয়ে আপাতত চিন্তা না করে শুধু 'সোনার তরী' নিয়ে ভাবা যাক। কেমন হতো সোনার তরী কবিতাটি? বাংলা টু নোয়াখাইল্লা অনুবাদ করে তা সবাইকে দেখানোর চেষ্টা করেছেন শরীফ মজুমদার। 

হোনার নুকা

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

 
আশশনে ঠাডা মারে, কী জইরে বাই!
হাড়ে অস্বর ব’ই রইছি কন আশা নাই।
থুবে থুবে, হোঁজা হোঁজা
দান কাডি বাইনচি বোজা
বরা নদী, ডেউয়ের হানি করের থইথই
কাইট্টে কাইট্টে দান চলি আইল জই।
এক্কেন ছোট্ট জমি, অস্বর আঁই,
চাইরমুই মরার হানি করের সাঁই সাঁই।
হে কিনারে রেনি, অবা
গাছগাছালি-ছাবা-ছুবা
গেরাম আন মেগে ডুবা
বেয়াইন্নার হ'র,
এক্কেন ছোট্ট জমি, আঁই অস্বর।
গান গাই, নুকা বাই কুঙ্গা আইয়ের রে!
দেখি যন লাগের আঁই চিনি হ্যাতেরে।
হ্যাতের হতে হ্যাতে যায়
কন মুই ন রেনি চায়
দোনমুইর ডেউয়ের হিডা, আঁই কিত্তাম,
লাগে যন চিনি হ্যাতেরে, কিয়া জানি নাম!
এরে তুই কার হোলা, কন্ডে যরি গই?
ইক্কিনি এমুই আয়ছান নুকা আন লই।
যেমুই খুশি হেমুই যাইছ
যিগারে খুশি হিগারে দিস
খালি তুই লই যা মন আন খুশি করি,
আর হোনার দান তোর নুকাত বরি।
যেত চছ, হেত ল, ইজ্ঞা হুদ্দান বাছি
আর আছেনি? - আর নাই, বেজ্ঞুন দিয়ালাইছি
এতদিন নদীর হায়
যা কইচ্চি, খাই ন খাই
ব্যাক কিচ্চু দিলাম তুলি
আত্ত কিচ্চু নাই!
অঙ্গা ইক্কিনি তোর নুকাত আঁরে দেচ্ছা ঠাঁই!
জাগা নাই! জাগা নাই! নুকা কদ্দুরি
আঁর হোনার দানে গেছে হুরা বরি
শন মাইঞা আশশন জুড়ি
মেগে চরে উড়ি উড়ি
বিরান নদীর হাড়ে
হড়ি রইলাম একা
যা আছিল ব্যাক লই গেছে হোনার নুকা।
২২১১ পঠিত ... ১৭:০১, আগস্ট ৩১, ২০২০

Top