মোল্লা নাসিরউদ্দিনের একটি 'অহেতুক' গল্প

১৪৯৫ পঠিত ... ১৬:৫৯, আগস্ট ০৮, ২০২২

Molla-nasir-uddin

এক ব্যক্তি মোল্লা নাসিরউদ্দিনের কাছে এসে বলল, ‘দেখুন বউ-বাচ্চা নিয়ে পাঁচজনের একটা পরিবার, ছোট্ট একটা রুমে গাদাগাদি করে থাকতে হয়। এই কষ্ট লাঘবের জন্য একটা সমাধান যদি দিতেন।‘

নাসিরুদ্দিন অনেকক্ষণ চিন্তাভাবনা করে বললেন, ‘আপনি একটা মুরগি কিনে আপনার সাথে রাখেন এবং কয়েকদিন পর আমার সাথে দেখা করেন।‘

সে চিন্তা করল, কী আজব! নিজেদের থাকার জায়গা নাই, আবার সাথে মুরগী রাখবো? যাই হোক, মোল্লা সাহেব বুদ্ধিমান মানুষ, নিশ্চয়ই কিছু একটা চিন্তা করেই বলেছেন। সে মুরগি সাথে রাখতে লাগলো।

কিছুদিন পর আবার নাসিরদ্দিনের সাথে দেখা করে জানালো, অবস্থা আগের চেয়ে খারাপ, এখন কী করা! এইবার বুদ্ধি পেলো, দুইটা ছাগল কিনে একসাথে রাখার। বেচারা  এইবার পরিবারের সাথে একটা মুরগী, দুইটা ছাগলসহ দিন কাটাতে লাগলো।   

কষ্ট যখন কমছেই না, এরপরেরবার মোল্লা তাকে বুদ্ধি দিলো একটা গাভী কিনে এক সাথে ঘরে রাখার জন্য।

এইভাবে অনেক দিন চলার পর যখন দেখল কোন সমাধান নাই, তখন মোল্লার কাছে শেষবারের মতো আসলো। মোল্লা এইবার বললো, ‘মুরগী, ছাগল, গরু সব ঘর থেকে বের করে কিছুদিন পর দেখা করো।‘

বেশকিছুদিন পর লোকটা যখন ফিরে আসলো, মোল্লা জানতে চাইলেন, ‘এখন কেমন আছো?’

লোকতা উত্তর দিলো, ‘আগের থেকে অনেক ভালো আছি। গত কিছুদিন যে কষ্টের মধ্যে দিন যাপন করছি, তা আর বলার মতো না!

১৪৯৫ পঠিত ... ১৬:৫৯, আগস্ট ০৮, ২০২২

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি


Top