কোয়ারেন্টাইনে প্রেমিকার সাথে যোগাযোগ রক্ষায় দুইদিনেই মাটির নিচে সুড়ঙ্গ তৈরি করলো প্রেমিক

৭০৫ পঠিত ... ০০:১৬, এপ্রিল ০২, ২০২০

করোনায় সারা পৃথিবীর মানুষ এখন বন্দিদশায়। এই গৃহবন্দিত্বের নাম হোম কোয়েরান্টাইন। সারা পৃথিবীর সব ব্যস্ততা যেন এক নিমিষেই কপূর্রের মতো উবে গেছে। মানুষের সাথে মানুষের দূরত্বের সময় এখন। আর এ কারণেই এই বিপদের সময়ে মহাবিপদে পড়েছে দেশের প্রেমিক সমাজ। এমন যোগাযোগহীনতার কারণে অনেক প্রেম ভেঙেছে, অনেকের ভাঙার পথেই। এমনকি কোথাও কোথাও লক্ষ্য করা গেছে, ভার্সিটির সিনিয়র-জুনিয়র ডিপার্টম্যান্টাল সম্ভাবনাময় প্রেম পর্যন্ত 'ভাইয়া' সম্পর্কে রূপ নিয়েছে।

আর এতেই ডাইনোসোর প্রজাতির মতোই আস্তে আস্তে বিলুপ্ত হতে পারে প্রেমিক সমাজ, এমনটাই আশঙ্কা করছেন একদল বিজ্ঞানী।

মহামারি করোনার কারণে এমন করুণ বিচ্ছেদ কোনভাবেই মেনে নিতে পারছেন না অনেক প্রতিবাদী প্রেমিক। নানান কায়দা কসরত করে তারা তাদের প্রিয়তমার সাথে দেখা করতে বের হচ্ছেন ঠিকই। তবে এরই মধ্যে এক প্রেমিক আবিষ্কার করেছেন অভিনব এক পদ্ধতি। প্রেমিকার সাথে যোগাযোগ রক্ষা করার জন্যে মাটির নিচ দিয়ে প্রেমিকার বাসা পর্যন্ত সুড়ঙ্গ তৈরি করেছেন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া এই প্রেমিক। এই সুড়ঙ্গ দিয়েই বিগত কয়েকদিন যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন তারা।

জানা যায়, ঘরবন্দি থেকে প্রেমিকার সাথে দেখা করার জন্যে অস্থির হয়ে ওঠেন এই সিভিল ইঞ্জিনিয়ার। অন্যদিকে প্রেমিকাকেও নিয়মিত মেসেঞ্জারে অনলাইনে দেখেও টাইমলি রিপ্লাই না পেয়ে তিনি কিঞ্চিত ইনসিকিওর হয়ে পড়েন। প্রেমিকার কথা ভুলে থাকতে তিনি গামলার ভাত গোনা শুরু করেন, ভাত গোনা শেষে ফ্যানের গতি কমিয়ে পাখা গোনা শুরু করেন। তবুও যেন সময় কাটে না। তিনি হতাশ চোখে আবার বাথরুমের টাইলস গোনেন কিছু সময়। তারপর বিরক্তির চূড়ান্ত সীমায় উঠে নিজের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বই খুলে বসেন। আর ঠিক তখনই মাথায় চট করে চলে আসে এই এই যুগান্তকারী আইডিয়া।

জুম মিটিং কলের মাধ্যমে এই প্রেমিকের প্রেমিকার এক বান্ধবী আরও জানান, আইডিয়া পাওয়া মাত্রই জুম কল দিয়ে তিনি প্রেমিকাকে তা জানান। প্রেমিকাও 'জোস আইডিয়া বাবু' বলে প্রয়োজনীয় সকল হিসাবনিকাশ মাপজোকে তাকে সহযোগিতা করেন। অতঃপর খুবই ডেস্পারেট হয়ে খোড়া শুরু করার দুদিনের মাথায়ই সাফল্য পেয়ে যান তিনি।

অন্যদিকে নির্ভরযোগ্য অন্য একটি সূত্রে জানা গেছে, সুড়ঙ্গের দুই প্রান্তেই দুটি হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখা হয়েছে, এছাড়া প্রেমিক-প্রেমিকাও মাস্ক পরেই সুড়ঙ্গে যাতায়াত করছেন।

তবে এ সম্পর্কে ওই প্রেমিকের মন্তব্য জানতে চাইলে তিনি আমাদের 'ভাই হোম কোয়ারেন্টাইন আছি' বলি পাশ কাটিয়ে যান। আমরাও নাছোড়বান্দা তার পিছু ছাড়িনি (৩ ফুট অর্থাৎ সামাজিক দূরত্ব মেইনটেইন করে)। সুযোগ পেয়ে আবারো তাকে মেসেঞ্জারে ভিডিও কল দিয়ে তার অনুভূতি জিজ্ঞেস করতে চাইলে তিনি বিরক্ত হয়ে বলেন, 'আরে ভাইরে ভাই কে আপনি?'

তবে একেবারেই প্রকাশ না করার শর্তে তিনি জানান, 'ভাই, সুড়ঙ্গ খুড়সিলাম ঠিকই, কিন্তু ওর বাপ টের পাইয়া গেছে, সুড়ঙ্গ আপাতত বন্ধ। ওয়াইফাই লাইন পর্যন্ত কেটে দিছে ভাই। প্লিজ, আমাকে একটু আইসোলেশনে থাকতে দেন।'

[eআরকি একটি স্যাটায়ার ওয়েবসাইট। এখানে প্রকাশিত যেকোনো খবর নিজ দায়িত্বে বিশ্বাস করুন।]

৭০৫ পঠিত ... ০০:১৬, এপ্রিল ০২, ২০২০

Top