সঙ্গী আর্জেন্টিনা হলে কী করবেন?

৫৩১ পঠিত ... ১৭:৫৯, নভেম্বর ২১, ২০২২

Shongi-argentina

সিলেট শহরের শ্রীমঙ্গলে বেড়ে উঠেছে আকাশ। পড়াশোনা থেকে খেলাধুলার প্রতিই ছিল তার বেশি ঝোঁক। খেলাধুলাতেও থাকে কিছু প্রিয় দল আর প্রিয় চাহিদা, আকাশের প্রিয় চাহিদা, ফুটবল আর প্রিয় দল, তার নামেরই মত ‘আর্জেন্টিনা’। সঙ্গী হিসেবেও চেয়ে বসলেন এক আর্জেন্টিনা প্রেমী। মাধ্যমিক পেরিয়ে উচ্চমাধ্যমিকে এসে প্রেম জমলো নাইমার সাথে।

নাইমাও একই শহরের মেয়ে, বাবা মায়ের চার নম্বর সন্তান। তিন ভাইয়ের পর এক বোন, পরিবারের সবার মধ্যমণি যেন। কিন্তু সমস্যা একটাই। নাইমা ছোটবেলা থেকেই বেড়ে উঠেছে ব্রাজিলিয়ান পরিবারে। তার পরিবারের প্রতিটা সদস্যই ব্রাজিল, তিন ছেলের পর মেয়ে পেয়ে বাবা নামও রেখেছেন নেইমারের সাথে সাথে নাইমা।

এমন জায়গায় বেড়ে উঠা নাইমা তার আর্জেন্টিনা সঙ্গীকে কী আসলেই সামলাতে পারবেন? নাকি হেরে যাবে তাদের ভালোবাসা? নিজের ভালোবাসাকে প্রমাণ করতে নাইমা সবার বিরুদ্ধে বিয়ে করে বসলেন আকাশকে। এবার তার ভালোবাসার পরীক্ষা দেবার পালা। কী মনে হয়, নাইমা কী পারবে আকাশের মনের মত আর্জেন্টিনা প্রেমী হতে? 

এমন নাইমা আর আকাশ আমাদের আশেপাশে অনেক আছেন। যারা নিজেদের সঙ্গী সামলাতে প্রতিনিয়ত হিমশিম খান। তাহলে আসুন জেনে নিই কীভাবে সামলানো যায় এমন আর্জেন্টিনা সঙ্গীকে।

 

১#

যে কোনো সেলিব্রেশনে ড্রিংকের বদলে ব্যবহার করবেন সেভেন আপ। এমনিতে তাদের জীবনে আনন্দের উপলক্ষ কমই আসে, একটু সেভেন আপে যদি সঙ্গি আনন্দ পায় খারাপ কী!

 

২#

প্রসাধনীতে জার্মান ব্র্যান্ডের প্রোডাক্ট ব্যবহার না করার চেষ্টা করুন। আপনার নরম মনের সঙ্গিটি ভয় পেতে পারে।

 

৩#

বাসার আসবাবে হলুদ রঙ কম ব্যবহার করুন। সম্ভব হলে একদমই ব্যবহার করবেন না। হলুদ রঙয়ের পরিবর্তে নীল রঙ্গকে প্রাধান্য দিতে পারেন।

 

৪#

মাঝেমধ্যে জোর করে হলেও সঙ্গীকে বলুন, ‘আর্জেন্টিনা আসলে ভালো খেলে, মেসি একবার হলেও একটা কাপ অন্তত ডিজার্ভ করে।‘

 

 

৫#

সপ্তাহে অন্তত দুইদিন ছাদে গিয়ে তার সাথে আকাশ দেখার চেষ্টা করুন। এতে তাদের মন একটু ভালো থাকে। আকাশ দেখা ছাড়া তাদের জীবনে আসলে তেমন কোন আনন্দ নেই।

 

৬#

‘জ’বর্গীয় সব শব্দ বলা থেকে নিজেকে সংযত রাখুন। এমনকি পার্টনারকে ‘জামাই’বলে ডাকারও দরকার নেই খুব একটা।

 

৭#

পার্টানারের সামনে ৩৬ শব্দটা যত পারবেন এড়ায়ে যাবেন। তাদের মনে এমনিতে অনেক দুঃখ, এই ধরনের শব্দ ব্যবহার করে তাদের মনে নতুন করে কোন দুঃখ না দেয়াই ভালো।

 

৮#

খাবারে হলুদের পরিবর্তে ব্যবহার করতে পারেন হারপিক। প্রথম কিছুদিন মুখে অরুচিকর মনে হলেও ধীরে ধীরে ঠিক হয়ে যাবে।

 

৯#

খেলার প্রথম রাউন্ড শেষ হবার সাথে সাথেই জার্সি পড়ে ছবি তোলে রেখে দিবেন, দুর্ঘটনার কথাতো বলা যায় না।

 

১০#

আর্জেন্টিনা কোন ম্যাচ হেরে গেলে সঙ্গিকে চোখে। একা একা কোথাও যেতে দিবেন না, বিদ্যুতের মেইন সুইচ অফ রাখার চেষ্টা করুন, সিলিং ফ্যান খুলে রাখুন। আর্জেন্টিনা কাপের জন্য না খেললেও আপনার ঘরে কাপ এই একটাই, তাই সতর্ক থাকুন।

৫৩১ পঠিত ... ১৭:৫৯, নভেম্বর ২১, ২০২২

Top