বিদেশিদের জন্য হওয়া ক্যাসিনোতে দেশি খেলোয়াড়দের ঢোকার কৌশল

৪৩৮ পঠিত ... ১৭:১৯, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৯

সম্প্রতি রাজধানীর বিভিন্ন ক্লাবে অভিযান চালিয়ে ‘আবিষ্কার’ করা হয়েছে অবৈধ ক্যাসিনো। বাংলাদেশের আইনে ক্যাসিনো অবৈধ হলেও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে, বিশেষ করে ট্যুরিস্ট স্পটগুলোয়, ক্যাসিনোসহ বিভিন্ন রকম বিনোদনের ব্যবস্থা থাকে। বিদেশি পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে বাংলাদেশের বিভিন্ন পর্যটন এলাকাগুলোয় এক্সক্লুসিভ ট্যুরিস্ট জোন গড়ে তোলার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এসব জোনে অন্যান্য অনেক কিছুর সাথে থাকবে ক্যাসিনোও। তবে কেবলমাত্র বিদেশিদের জন্য হওয়া এসব ক্যাসিনো থেকে কি বঞ্চিত থাকবেন তুখোড় দেশি খেলোয়াড়রা? কী করে এসব ক্যাসিনোতে দেশি খেলোয়াড়রা ঢুকতে পারবেন, তার কিছু উপায় বের করেছে eআরকির ক্যাসিনো বিশেষজ্ঞ দল।

১# বাংলাদেশে অবস্থানকারী বিদেশি নাগরিকদের পার্সোনাল সেক্রেটারির কাজ নেয়ার চেষ্টা করতে পারেন। তাহলে তার সাথে অনায়াসেই যেতে পারবেন বিদেশিদের জন্য ‘এক্সক্লুসিভ’ভাবে নির্মিত ক্যাসিনোগুলোতে। আপনার বিদেশি বস জুয়া খেলায় আগ্রহী না হলেও ক্ষতি নেই, তাকে ক্যাসিনোর ভাতের হোটেলে বসিয়ে রেখে তার প্রক্সি হিসেবে আপনি কয়েক দান খেলে আসতেই পারেন!

২# কাকের ময়ূর সাজার মতো আপনার দেশি পাসপোর্টে বিদেশি কভার লাগিয়ে নিন। মধ্যরাতের আধো আলোতে গার্ডের চোখ ফাঁকি দিয়ে ঢুকে যেতে পারেন এই ক্যাসিনোতে।

৩# গ্রামীণফোনের সাথে চুক্তি করা যেতে পারে। কারণ গ্রামীণফোন মানেই ‘চলো বহুদূর’। যারা বহুদূর নিয়ে যাওয়ার আশ্বাস দেয় তারা এই হাতের কাছে ক্যাসিনোতেও নিতে পারবে। তাছাড়া তাদের স্পেশাল কোন সিম কিনেও ক্যাসিনোতে যাওয়ার সুযোগ থাকতে পারে।

৪# লিলিপুট বা বনসাই হয়ে ক্যাসিনোর জন্য আনা বিশেষ পানীয়র বোতলে ঢুকে একটা চেষ্টা দেয়া যেতে পারে। লিলিপুট হয়ে বোতলে ঢোকার জন্য কোন তান্ত্রিক সাধুর কাছে ধর্না দেয়া যেতে পারে। মানুষ জাহাজের ড্রামে বসে বিশাল সমুদ্র পাড়ি দিয়ে স্বপ্নের দেশে চলে যায়, ক্যাসিনোতে যাওয়াও খুব একটা কঠিন হবে না।

৫# বাংলাদেশি হয়েও ক্যাসিনোতে যাওয়ার আরেকটা সহজ মাধ্যম হয়ে মরে যাওয়া। মরে গেলে আপনি জ্বীন, ভূত হয়ে মনের খুশিতে যেখানে সেখানে যেতে পারবেন। ক্যাসিনোতেও ঢুকতে পারবেন। চাইলে ক্যাসিনোর বিশেষ রুমগুলোতেও ঢুকতে পারবেন। তবে মরে গেলে যদি জ্বীন-ভূত না হতে পারেন, সেক্ষেত্রে কিন্তু আমাদের কোন দায় নেই।

৬# হ্যারি পটারের সেই ঝাড়ু বা অদৃশ্য হওয়া বিশেষ পর্দা ম্যানেজ করা যেতে পারে। ঝাড়ু দিয়ে উড়ে উড়ে ঢোকা যাবে। কিংবা হ্যারি পটারের ইনভিজিবিলিটি ক্লোক ব্যবহার করে অদৃশ্য হয়েও ঢুকতে পারেন। অবশ্য এই ক্লোক কোথায় পাওয়া যাবে, সে ব্যাপারে আমাদের ধারণা নেই।

৭# কোনভাবে ক্যাসিনো কমিটিকে ধরে সেখানে মোটিভেটর নামে একটা পদ সৃষ্টি করতে পারেন। এরপর মোটিভেশনাল স্পিকার হয়ে হেরে হতাশ হওয়া খেলোয়াড়দের মোটিভেশন দেয়ার জন্য ক্যাসিনোতে প্রবেশ করতে পারেন। তা না পারলে সিকিউরিটিকে মোটিভেট করে ঢোকার চেষ্টা করতে পারেন।

৮# ক্যাসিনোতে ঢোকার আগে রান্নাঘরে ঢুকুন। দেশি বিদেশি নানা পদের রান্না ভালোমতো শিখে ফেলুন। গদাখামাসুর ক্যাসিনো ফুড রিভিউ দেখে নিশ্চয়ই ইতিমধ্যে জানেন, ক্যাসিনোর খাবার বেশ ভালো হয়। অনেকে শুধু খাবারের লোভেই ক্যাসিনোতে ঢুকে। নিজেকে একজন উঁচুমানের শেফ হিসেবে গড়ে তুলতে পারলে ক্যাসিনোতে পার্মানেন্ট চাকরি পেতে কোন সমস্যাই হবে না। আর কাজের ফাঁকে স্ট্রেস রিলিফের জন্য একটু আকটু স্লট মেশিনে বসতেই পারেন। কেউ মাইন্ড করবে না।

৪৩৮ পঠিত ... ১৭:১৯, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৯

Top