ডেঙ্গু ঠেকাতে যে ১০টি 'কার্যকর' পরামর্শ এখনো দুই মেয়রের কেউ দেননি

১৭৮ পঠিত ... ১৬:৫৫, আগস্ট ০৫, ২০১৯

ডেঙ্গু প্রতিরোধের জন্য আমরা প্রতিদিনই নতুন নতুন উপদেশ পাচ্ছি। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘কন্ট্রোল দ্য মসকিউটো পপুলেশন’! উত্তর ঢাকার মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, কারো বাসায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। দক্ষিণ ঢাকার মেয়র সাঈদ খোকন তো আরও কয়েক কাঠি সরেস, তিনি বলেছেন লম্বা লম্বা জামা-পায়জামা পরতে। এতসব পরামর্শের মাঝে আমরাও ভাবলাম, আমরাও কিছু পরামর্শ দিতে পারি। ডেঙ্গু প্রতিরোধের জন্য তাই আমরা নিয়ে হাজির হয়েছি ১০টি এক্সক্লুসিভ পরামর্শ, যা এখনো কেউ দেয়নি। আপনারও যদি কাউকে পরামর্শ দেয়ার জন্য মুখ নিশপিশ করে, এর মধ্যে যেকোনোটা নিজের নামে চালিয়ে দিতে পারেন!

 

 

১# সারা গায়ে লেমিনেটিং করুন

সারা শরীরের লেমিনেটিং করে ফেলুন। মশা কামড়ানোর জায়গাই পাবে না!

 

২# বাটিতে রক্ত রেখে মশাদের জন্য ব্যুফে আয়োজন করুন

মশাদের জন্য যদি আপনি আলাদা পাত্রে ‘খাবার রক্তের’ ব্যবস্থা করেন, হয়তো মশা আপনাকে না কামড়ে ধীরে সুস্থে সেই পাত্র থেকেই রক্ত খেয়ে নেবে।

 

৩# পরিশ্রম করে রক্ত পানি করে ফেলুন

প্রচুর পরিশ্রম করে রক্ত পানি করে ফেললে মশা আপনার আশেপাশে যদি আসেও, কামড়ানোর কথা না!

 

৪# আয়রনযুক্ত খাবার বর্জন করে রক্তশূন্যতায় ভুগুন

আপনার শরীরেই যদি রক্ত না থাকে, মশা কেন কামড়াবে? সুতরাং আয়রনযুক্ত খাবারসহ রক্তশূণ্যতায় ভুগতে হলে যা যা খাওয়া বাদ দিতে হয়, বাদ দিয়ে দিন।

 

৫# মশা কামড়ালে মশাকেও কামড়ে দিন

কুকুরের কাজ কুকুর করেছে কামড় দিয়েছে পায়, তাই বলে কুকুরকে কামড়ানো কি মানুষের শোভা পায়? কিন্তু মশা তো কুকুর না, মশাকে কামড়ালে তো আর সমস্যা নাই। মশা দেখলেই কামড়ে দেবেন, দেখবেন আর ধারেকাছেও আসছে না।

 

৬# হ্যামিলিনের বাঁশিওয়ালাকে ভাড়া করুন

হ্যামিলিনের বাঁশিওয়ালাকে ভাড়া করে মশাদের জন্য ওপেন এয়ার কনসার্ট আয়োজন করুন। উনি এক্সপেরিয়েন্সড মানুষ, বাকি কাজ উনিই করে দেবেন। তবে মেয়ররা যদি উনার সাথে পারিশ্রমিক নিয়ে কোনো গ্যাঞ্জাম করে, সেই দায় আমাদের না।

 

৭# ডেঙ্গু হওয়ার ভান করুন

মশা আশেপাশে আসলেই ‘ওমা গায়ে কি ব্যথা!’, ‘খুব জ্বর জ্বর লাগছে’ এমন সব কথা বলুন, অসুস্থ হওয়ার ভাব করুন। মশা ভাববে আপনার অলরেডি ডেঙ্গু হয়ে গেছে, আবার কামড়ে লাভ কী!

 

৮# সব পানি নোংরা করে ফেলুন

এডিস মশা জন্মায় পরিষ্কার পানিতে। সুতরাং যেখানে পরিষ্কার পানি দেখবেন সব নোংরা করে দিন। পানিতে স্রোত থাকলে মশা জন্মাতে পারে না। তাই স্থির পানি দেখলেই ঝাঁকিয়ে অস্থির করে দিন...

 

৯# মশাদেরকে শিক্ষিত করে তুলুন

মশাদেরকে না মেরে তাদেরকে অহিংস পদ্ধতিতে বুঝান, ভদ্রলোক কখনো রক্ত খায় না। চাইলে মশাদের জন্য কোচিং খুলতে পারেন।

 

১০# শেষ ভরসা: বিদেশ চলে যান

কোনো পদ্ধতিই কাজে না লাগলে স্বাস্থ্যরক্ষার জন্য স্বাথ্যমন্ত্রীকে ফলো করতে পারেন। তবে বিদেশ মানে বুঝেন তো, বিদেশ! 

১৭৮ পঠিত ... ১৬:৫৫, আগস্ট ০৫, ২০১৯

Top