ক্লাসমেটকে স্যার ভেবে দাঁড়িয়ে সমস্বরে সালাম দিলো শিক্ষার্থীরা

৫১৮ পঠিত ... ১৬:৩৭, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১

Classmate-ke-salam-dilo

ঘটনাটা কুতুব উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের। ১ বছর ৫ মাস ২৫ দিন পর স্কুল কলেজ খুলেছে। এই দীর্ঘ সময়ে স্কুল শিক্ষার্থীদের শারীরিক পরিবর্তন আসবে সেটাই স্বাভাবিক। তবে পরিবর্তন একটু বেশিই হয়েছে রোমেলের বেলায়। সারাদিন ঘরে শুয়ে বসে ভিডিও গেম খেলা আর এইটা ওইটা খাওয়া ছাড়া কোনো প্রকার কায়িক শ্রম করেনি সে এতদিন। প্রিয় খাবার পরোটা আর মাংস তার ফলাফল দেখিয়েছে। সেই আমূল পরিবর্তনই নিয়ে এলো বিপত্তি!

স্কুল খোলার পর পুরাতন স্কুল ড্রেস না গায়ে লাগায় নতুন ড্রেস ইন করে সেজেগুজে স্কুলে যাওয়ার পর সহপাঠীরা রোমেলকে চিনতে পারেনি। বরং তাঁর হঠাৎ বেড়ে যাওয়ার শারীরিক দৈর্ঘ্য ও প্রস্থে কনফিউজ হয়ে উঠে দাঁড়িয়ে স্যার ভেবে লম্বা সালাম দিয়েছে।

এ ঘটনায় উপস্থিতদের প্রতিক্রিয়া জানতে (আসলে নিজের চোখে দেখে মজা পাইতে) আমাদের সঙবাদ সংগ্রাহক চলে যান সেই স্কুলে। সরেজমিনে ঘুরে আসার পর তিনি কথা বলেন ওই ক্লাসের কয়েকজনের সাথে। রাজু নামের একজন বলেন 'কি একটা কাহিনী হইয়া গেল, বন্ধুরে স্যার কইলাম। অন্য ক্লাসের পোলাপান শুনলে কী কইবো!'

বন্ধুকে স্যার বলায় বিমর্ষ ফার্স্ট বয় মুন্না। তিনি বলেন 'ও ভালো ছাত্র না হয়েও স্যার হয়ে গেল, এখন থেকেই ওরে সবাই রোমেল স্যার বইলা ডাকতেছে। এখন বাসা থেকে যদি জিজ্ঞেস করে "কেমন ছাত্র হইলি তোরে স্যার কয় না কেউ" আমি কি জবাব দিবো?'

রোমেলের সাথে কথা বলতে গেলে তিনি জানান 'প্রথমে একটু ভ্যাবাচ্যাকা খায়া গেলেও এখন ভালো লাগতেছে। স্যার গো কেমন ফিলিংস হয় এত সালাম পাইলে, এইটা ফিল করে নিজের মধ্যে একটা স্যার স্যার ভাব চলে আসছে। আমি কিছু মনে করি নাই।'

তবে রোমেলের এক বন্ধু নিচু গলায় বন্ধুকে স্যার ডাকার পাশাপাশি স্যারদেরকেও হঠাৎ একদিন 'দোস্তো' বলে ডেকে ওঠার গোপন খায়েশ প্রকাশ করেন।

৫১৮ পঠিত ... ১৬:৩৭, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১

Top