অনলাইনে কুংফু ক্লাস করতে গিয়ে ল্যাপটপ ভেঙ্গে ফেললো ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কুদ্দুস

২৯১ পঠিত ... ১৮:৩৪, অক্টোবর ১৯, ২০২০

এই করোনাকালে অনলাইন ক্লাসে ঘটেছে নানান দূর্ঘটনা। তবে সবচেয়ে বড় দূর্ঘটনা ঘটেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে। জানা যায়, অনলাইনে কুংফু ক্লাস করতে গিয়ে ল্যাপটপ ভেঙ্গে ফেলেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কুদ্দুস নামের এক শিক্ষার্থী।

ঘটনার সাথে জড়িত কুংফু মাস্টারের সাথে কথা বলে ঘটনার সত্যতা জানা যায়। ওই ক্লাসের কুংফু শিক্ষক বলেন, 'ক্লাস তো ঠিকঠাকই চলছিলো। হুট করে ছেলেটা ট্যাঁটা নিয়ে আসলো ক্যান বুঝলাম না।'

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কুদ্দুস বলেন, 'স্যার হুট করে আনমিউট করার 'হুইক, হাইক' শব্দে আমি ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে যাই। কিছু বুঁঝে উঠার আগেই আমার বাবা পাশের রুম থেকে ট্যাঁটা নিয়ে আসলে আমিও নিজেকে কন্ট্রোল করতে পারিনি।'

ট্যাঁটা ছাড়া এমনিতেও কুংফু টুংফু ক্লাস করতে শইল্লে জোশ আসে না বলেও জানান ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এই যুবক।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত উক্ত শিক্ষক পলাতক আছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। অন্য সূত্র থেকে জানা যায়, ওই স্কুলের সব শিক্ষকই পলাতক আছেন। অন্যদিকে ক্লাস করতে গিয়ে ল্যাপটপ ভাঙ্গায় স্যারের উপর ক্ষেপেছেন কুদ্দুস ও তার এলাকাবাসী। পরিস্থিতি সামাল দিতে কুদ্দুসকে নতুন ল্যাপটপ দেয়ার প্রস্তাবেও শান্ত করা যায়নি। ট্যাঁটা হাতে কুদ্দুস বলেন, 'ল্যাপটপের বদলা ল্যাপটপ ভাইঙ্গাই নিমু।'

২৯১ পঠিত ... ১৮:৩৪, অক্টোবর ১৯, ২০২০

Top