ডায়বেটিসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামলেন জাবি শিক্ষার্থীরা

২৪০ পঠিত ... ২০:১৩, জুলাই ০৪, ২০১৯

কথায় আছে, স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। সুস্থভাবে বেঁচে থাকা কত বড় সৌভাগ্যের ব্যপার, একজন রোগে ভোগা মানুষ ছাড়া আর কেউ তা উপলব্ধি করতে পারে না। ভয়ংকর রোগগুলোর মধ্যে একটি হলো ডায়বেটিস!

ডায়বেটিসের এই করাল গ্রাস থেকে সবাইকে মুক্ত করতে এবার মাঠে নেমেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। শাক-সবজিতে পরিপূর্ণ সবুজ ক্যাম্পাসের জন্য খ্যাত এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মিষ্টি নামক নীরব ঘাতকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের ফোরপ্লে শুরু করেছেন ক্যাম্পাসের বিখ্যাত বটতলায়।

মিষ্টির দোকানে দুই শিক্ষার্থীর গায়ে ধাক্কা লাগাকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটির জেরে দুই হলের শিক্ষার্থীদের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলা এলাকায় দুই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে চলা এ সংঘর্ষে মধ্যে এ সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক আহত হয়েছেন। বঙ্গবন্ধু হলের কয়েকজন শিক্ষার্থীকে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছুড়তে দেখা গেছে। খবর: বিডিনিউজ টুয়েন্টিফোর।

শুধু ধাক্কা লাগা নিয়েই কি এই মহারণ? তাতো হতে পারে না! মিষ্টি ছাড়া রঙ চা খেয়ে আমাদের সংগ্রামী প্রতিবেদকরা তাই মূল ঘটনা উদ্ধারে মাঠে নেমে পড়েন। একটু খোঁজখবর করতেই জানা যায়, মূলত ডায়াবেটিসকে নির্মূল করতেই মিষ্টির বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমেছেন শিক্ষার্থীরা। মিষ্টির বিরুদ্ধে ক্রোধে অন্ধ হয়ে লড়াইয়ের ডেমো দিতে গিয়েই প্রায় ৬৫ জন আহত হয়েছেন। কিন্তু মিষ্টির বিরুদ্ধে এই মহৎ যুদ্ধে একটু রক্ত ঝরতেই পারে- এই আখ্যা দিয়ে তারা নতুন করে মিষ্টি আক্রমণের পরিকল্পনা করছেন বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে একজন মিষ্টিযোদ্ধা আকাশে একটি ফাঁকা গুলি ছুড়ে জানান, ‘মিষ্টিকে আমরা আমাদের ক্যাম্পাসে থাকতে দেবো না। যারা মিষ্টি খায় এবং মিষ্টি খাওয়ার ব্যাপারে ইন্ধন জোগায়, কাউকে আমরা ছাড়বো না।’

এ সময় আশেপাশে থাকা মিষ্টি নামের এক মেয়ে ভয় পেয়ে পালিয়ে যায়।

তবে আরেক পক্ষ বলছে, এটা একটা সুইট ফাইট ছিল, সিরিয়াস কিছু না। এ নিয়ে মিষ্টি পরিস্থিতি টক-ঝাল বা তেতো করার কিছু নেই! 

২৪০ পঠিত ... ২০:১৩, জুলাই ০৪, ২০১৯

Top