কাপড় কীভাবে গুছিয়ে রাখবেন? (কিছু ব্যাচেলর টিপস)

১৫৫ পঠিত ... ১৮:২২, জানুয়ারি ১০, ২০২৩

কাপড়-কীভাবে-গুছিয়ে-রাখবেন

অনেকেই আলমারি কিংবা ওয়ারড্রোবে জামা-কাপড় সুন্দরভাবে ভাঁজ করে রাখেন। কিন্তু এভাবে সুন্দর করে থাকে থাকে কাপড় সাজিয়ে রাখা কোন আদর্শ পদ্ধতি নয়। আলমারি, আলনা কিংবা ওয়ারড্রোব ছাড়াও কাপড় ভাঁজ করার রয়েছে আরও বেশ কিছু আদর্শ পদ্ধতি। eআরকির একদম অলস গবেষক খুঁজে বের করেছেন এমনই কিছু পদ্ধতি। 

 

১#

কাপড় রাখার সবচেয়ে আদর্শ স্থান হচ্ছে বাসার চেয়ার। চেতারের হাতলে থরে থরে কাপড় সাজিয়ে রাখবেন। দরকার হলে কিছু কাপড় চেয়ারের বসায় জায়গাতেও রাখবেন। এরপর এই চেয়ারে বসলেও আরাম পাবেন।

 

২#

সোফা হতে পারে কাপড় রাখার আরেক আদর্শ জায়গা। অনেকে সোফাতে কাপড় ভাঁজ করে রাখেন। এমনটা রাখবেন না। সোফা কাপড় রাখার ক্ষেত্রে খেয়াল রাখবেন, কাপড়ের একটা অংশ সোফার উপরে থাকলে আরেকটা যেন সোফার নিচে ফ্লোরে পড়ে থাকে। এভাবে ভাঁজ করলে আপনার কাপড়ও হয়ে উঠতে পারে একটা আস্ত শিল্পকর্ম।

 

৩#

কাপড় গুছিয়ে রাখার জন্য ব্যবহার করতে পারেন আপনার বিছানাকেও। বিছানার এখানে সেখানে কাপড় স্তুপ করে রাখবেন। এতে বিছানায় বেশ ভালো ঘুম হবে।

 

৪#

কাপড় শুকানোর ঝামেলাতে যাওয়ার কোনো কারণ নেই। ভেজা কাপড় বাথরুমের বেসিন এই রেখে চলে আসুন। দুইদিন পর গোসল করে ওটাই গায়ে দিয়ে বের হতে পারবেন।

 

৫#

কিছু কাপড় দিতে পারেন আপনার পড়ার টেবিলকেও। কেউ যদি জিজ্ঞেস করে, ‘তোর জামাকাপড় টেবিলে কেন?’ বলবেন, ‘বই বলে কি তাদের কাপড় পরার অধিকার নাই?’

 

৬#

বাসা খালি থাকলে আপনার প্রেমিক/প্রেমিকাকে ডাকুন। এরপর দুজন মিলে কাপড় গোছান। একা করার চেয়ে একসাথে করলে কাজ অনেক সহজ। কাপড় গোছানোর পর কী করবেন সেটা আপনাদের ইচ্ছা। 

 

৭#

কাপড় যদি লাগেজ থেকে বের না করেন তাহলে গোছানোরও কোনো ঝামেলা থাকলো না। তাই আপনাকে যেটা করতে হবে লাগেজ থেকে কাপড় বের করে পরে ওই কাপড় আবার কোনোরকম লাগেজে রেখে দেয়া।

১৫৫ পঠিত ... ১৮:২২, জানুয়ারি ১০, ২০২৩

Top