ফেসবুকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট একসেপ্ট না হলে যে ১০টি উপায়ে করাতে পারেন

১২০৯ পঠিত ... ১৭:২৮, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

ফেসবুকে কাউকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠালে তিন রকম ঘটনা ঘটতে পারে। একসেপ্ট হবে, একসেপ্ট হবে না, অথবা আপনি ঝুলে থাকবেন। বাকি দুইটা বিষয়ে সমস্যা নেই, কিন্তু যদি রিকোয়েস্ট একসেপ্ট না হয়, তাহলে কী করবেন? অনেকেই রিকোয়েস্ট একসেপ্ট না হলে বারবার রিকোয়েস্ট পাঠাতেই থাকে, পাঠাতেই থাকে। যেন ঐ ব্যক্তির লিস্টে না ঢুকতে পারলে তার জীবন বৃথা, তার জীবনের লক্ষ্য শুধু ঐ ব্যক্তির ফ্রেন্ডলিস্টে স্থান পাওয়া! যদি এমন এমার্জেন্সিও হয়, তাহলে বারবার রিকোয়েস্ট পাঠিয়ে সময় নষ্ট করবেন না। দেখুন, ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট একসেপ্ট না হলে আরও কত কি করার আছে! ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করানোর এসব নিনজা টেকনিক খুঁজে বের করেছেন আমাদের ‘কখনোই রিকোয়েস্ট একসেপ্ট না হওয়া’ আইডিয়াবাজদের দল।



১# পাপারাজ্জি স্টাইল

যে রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করেনি, তার কোনো বন্ধুববান্ধবকে হাত করে তার একটি ছবি খুঁজে বের করুন। সুন্দর সুন্দর প্রোফাইল পিকচারগুলো না, ‘ট্যাগড ফটোজ’ থেকে একটা বদখত ছবি বের করতে হবে। এরপর ‘একসেপ্ট না করলে সেই ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে দেবেন’ এমন হুমকি দিতে পারেন।

 

২# ‘মিউচুয়াল ফ্রেন্ড’ পদ্ধতি

তার অন্যান্য ফেসবুক ফ্রেন্ডদের ফ্রেন্ডলিস্টে ঢুকে পড়ুন। তাহলে ফেসবুকের ‘ফ্রেন্ডশিপ করায়েই ছাড়বো’ টাইপ এলগরিদমের কারণে ‘পিপল ইউ মে নো’ হিসেবে আপনার প্রোফাইল তার চোখের সামনে ঘুরঘুর করবে। ফলে তিনি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট আগে ডিক্লাইন করে দিলেও ফেড আপ হয়ে নিজেই আবার আপনাকে এড রিকোয়েস্ট পাঠিয়ে বসবেন।

 

৩# গায়েবী আওয়াজ দিন

তার বেডরুমের জানালার পাশে বিশেষ সাউন্ডবক্স ফিট করে রাখবেন। গভীর রাতে রহস্যময় ইফেক্ট দিয়ে আপনার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করার নির্দেশ দিবেন। গায়েবী আওয়াজ ভেবে তিনি তৎক্ষণাৎ আপনার রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করে বসবেন। 

 

৪# বিখ্যাত কারো নাম নিন

আপনার নাম বদলে সাময়িকের জন্য লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও রেখে দিন। এবং কয়েকদিন ধরে হলিউড, অস্কার এবং পরিবেশ সচেতনতা নিয়ে নিয়মিত পোস্ট দিয়ে দিয়ে প্রোফাইলটিকে বিশ্বাসযোগ্য করে তুলুন। এবার আপনার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট কেউ একসেপ্ট না করে পারবেই না। 

 

৫# গুজব পদ্ধতি

আপনাকে ফেসবুকে এড করা মাত্র বিভিন্ন রাইড শেয়ারিং সার্ভিসে ডিসকাউন্ট পাওয়া যাবে বলে গুজব রটান। আপনার রিকোয়েস্ট ঝুলিয়ে রাখা ব্যক্তিটি গুজবে বিশ্বাস করলে আপনি পেয়ে যাবেন তার ফ্রেন্ডলিস্টে এন্ট্রি।

 

৬# বশীকরণ পদ্ধতি

আসামের কামাখ্যায় গিয়ে কোন সিদ্ধপুরুষের কাছে বশীকরনের শিক্ষা নিয়ে আসুন। সেই শিক্ষার আলোকে আপনার রিকোয়েস্ট যে ঝুলিয়ে রাখে, তাকে নিজের বশে নিয়ে আসুন, এবং ফ্রেন্ড রিকোয়েস্টও একসেপ্ট করিয়ে নিন। 

 

৭# বায়োতে ‘রাধুনী’ পরিচয় লিখুন

আপনার ফেসবুকের বায়োতে লিখে রাখুন, আপনি খুব ভালো কাচ্চি রান্না করতে পারেন এবং বৃষ্টির দিনে রিকোয়েস্ট করলে খিচুড়িও রান্না করে থাকেন। তা হলে আপনার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করতে যে কেউ বাধ্য।

 

৮# হিপনোটাইজ করুন

আপনাকে ঝুলিয়ে রাখা মানুষটিকে ইনবক্সে পেন্ডুলামের জিফ পাঠাতে থাকুন। যদিও সেই মেসেজ আদার মেসেজেসে চলে যাবে, তবে মেসেজ খুললেই পেন্ডুলামের জিফ দেখে সে হিপনোটাইজ হয়ে আপনার রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করতেও পারে। হলে সামনে পেলে তার উপর সম্মোহনবিদ্যা প্রয়োগ করে দেখতে পারেন। 

 

৯# অনশনে বসতে পারেন

যাকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়েছেন তার চোখে পড়া যাবে এমন কোথাও অনশনে বসে পড়ুন। রিকোয়েস্ট একসেপ্ট না করলে আপনি অনশন থেকে উঠবেনই না, ব্যাপারটা একদম স্টাবলিশ করে ফেলুন। ঘটনাটা ভাইরাল হয়ে গেলে রিকোয়েস্ট একসেপ্ট না করে উপায় থাকবে না, আর সেই সঙ্গে আপনিও বিখ্যাত হয়ে উঠবেন, মিম পেজগুলোতে দেখতে পাবেন নিজের অনশনের ছবি নিয়ে মিম!

 

১০# ব্লক করে দিন

যে আপনার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করেনি, আপনি তাকে উল্টো ব্লক করে দিন। ঢিলের বদলে পাটকেল, একসেপ্ট না করার বদলে ব্লক। নিউটন সাহেবই তো বলে গেছেন, প্রতিটি ক্রিয়ারই সমান ও বিপরীতমুখী প্রতিক্রিয়া আছে, তার কথা অমান্য করলে কেমন দেখায়!

১২০৯ পঠিত ... ১৭:২৮, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

Top