মেসিকে ভিনগ্রহ 'আর্গিতিনা'য় ফিরিয়ে নিতে চায় ভিনগ্রহের প্রাণীরা

১৩৮৪ পঠিত ... ২০:৪২, ডিসেম্বর ০৩, ২০১৯

সারা বিশ্বের সাংবাদিকদের ভোটে ভার্জিল ভ্যান ডাইক ও ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে হারিয়ে ফরাসি সাময়িকী ‘ফ্রান্স ফুটবল’- এর পুরস্কার ব্যালন ডি’অর জিতে নিয়েছেন লিওনেল মেসি। রেকর্ড ষষ্ঠবারের মতো এই পুরস্কার জিতলেন 'ভিনগ্রহের খেলোয়াড়' খ্যাত এই তারকা। সেই সঙ্গে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকেও ব্যালন ডি অর ব্যবধানে ছাড়িয়ে গেলেন মেসি, রোনালদো যে পুরস্কারটি জিতেছেন পাঁচবার!

পুরস্কারটি ঘোষিত হওয়ার পর এই গ্রহের পাশাপাশি এবার তাই সাড়া পড়ে গেছে এই গ্রহের বাইরেও, অর্থাৎ ভিনগ্রহেও! eআরকির বিশেষ রাডারে ধরা পড়ে পৃথিবী থেকে কয়েক আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত আর্গিতিনা গ্রহের প্রাণীদের একটি বিশেষ কথোপকথন। জানা যায়, ব্যালন ডি অর ঘোষিত হওয়া মাত্রই একটি জরুরি মিটিংয়ে বসেন তারা। মূলত মেসিকে আবারো নিজেদের গ্রহে ফিরিয়ে নিয়ে আসাই এই মিটিংটির প্রধান এজেন্ডা।

আর্গিতিনা গ্রহটির এই জরুরি সমাবেশে একজন সিনিয়র এলিয়েন বলেন, 'ও দিন দিন এরকম অনবদ্য হয়ে উঠবে, একের পর এক নিজেকে ছাড়িয়ে যাবে, এসব জানলে ওকে কখনোই নিজেদের গ্রহ থেকে পৃথিবীতে পাঠাতাম না। তাও শালা এমন এক দেশে, যারা আর জিতে না। ক্লাবে খেলেই ছেলেটাকে সারাজীবন জিততে হলো। এর একটা বিহিত দরকার।'

এই পর্যায়ে আন্তঃগ্রহ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ আয়োজনের পরিকল্পনা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, 'সামনে আন্তঃগ্রহ ফুটবল টুর্নামেন্ট ছাড়তেছি। মেসিকে আমাদের লাগবেই। এক মেসি থাকলেই অন্য সব গ্রহের সব প্লেয়ারকে ছাতু বানিয়ে দেয়া সম্ভব।' এই পর্যায়ে তিনি বাংলাদেশের শামীম ওসমানের মতো হাত নাড়িয়ে একটি 'খেলা হবে'সূচক ভঙ্গী করেন।

মেসির চাইল্ডহুড ফ্রেন্ড জাদু (হিন্দি 'কোই মিল গ্যায়া সিনেমায় অভিনয় করেছেন) মেসিকে নিয়ে বলতে গিয়ে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন, 'মনে পড়ে শৈশবের সেই দিনগুলোর কথা। একসঙ্গে কত ফুটবল খেলেছি। কিন্তু আজ মেসি নেই। বাট উই কেয়ার। মেসিকে ফিরিয়ে আনতেই হবে। খুব মিস করি আমার বন্ধুকে। একবার পৃথিবী থেকে সিগনাল আসলো, ভাবলাম বন্ধু মেসিই আমাকে ডাকছে। 'ওম ওম ওম ওম' সিগনাল ধরে আগায়ে দেখি হৃত্বিক! শালা হুদাই সিনেমায় অভিনয় করা লাগলো।'

ভিনগ্রহ আর্গিতিনায় বসবাসরত মেসির আরেক চাইল্ডহুড ফ্রেন্ডও সহমত জানিয়ে বলেন, 'শুধু বিশ্বকাপ না, পৃথিবীর মানুষজনও মেসিকে ডিজার্ভ করে না। ওকে ফিরিয়ে আনতে কিছু করেন ভাই। দরকার হইলে আমির খান, না মানে "পিকে"রে পাঠান। ন্যু ক্যাম্পের মাঠের মধ্যে স্পেসশিপ ল্যান্ড করায়ে ওরে তুইলা নিয়া আসুক।'

সমাবেশের একেবারে শেষ পর্যায়ে সকলে মিলে মেসির সাম্প্রতিক একটি জোস ফ্রি কিক দেখার মাধ্যমে সমাপনী ঘোষণা করা হয়। সে সময় সবাইকেই নিজের অজান্তে বিড়বিড় করে বলতে শোনা যায়, 'মিস ইউ মেসি'।

১৩৮৪ পঠিত ... ২০:৪২, ডিসেম্বর ০৩, ২০১৯

Top