মশা মারার র‍্যাকেট দিয়ে এডিস মশা নিধনে ঢাকা আসছেন রজার ফেদেরার

১৫৪ পঠিত ... ২০:০৪, জুলাই ২১, ২০১৯

রজার ফেদেরার। টেনিসের মতো কঠিন খেলায় প্রায় দুই দশক ধরে রাজত্ব করছেন এই তারকা। রেকর্ড ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতে নিজেকে নিয়ে গেছে অনন্য উচ্চতায়। ক'দিন আগেই ২১তম গ্রান্ড স্ল্যাম জয়ের একেবারে কাছাকাছি গিয়ে শ্বাসরুদ্ধকর উইম্বলডন ফাইনালে হেরে যান নোভাক জোকোভিচের কাছে। তবে শুধু ক্রীড়া ক্ষেত্রেই নয়, র‍্যাকেট হাতে তার এই জাদু তিনি মানুষের উপকারেও কাজে লাগাতে চান। ডেঙ্গু যখন প্রায় মহামারীর পর্যায়ে চলে যাচ্ছে তখন ঢাকা শহরের মশা নিধনে অচিরেই মশা মারার র‍্যাকেট নিয়ে মাঠে নামার ঘোষণা দিয়েছেন এই টেনিস তারকা। 

নিজের 'ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা' বিষয়ক এক সংবাদ সম্মেলনে রজার ফেদেরার এসব কথা বলেন। মশা মারার র‍্যাকেট হাতে নিয়ে তিনি বলেন, 'টেনিসের র‍্যাকেট দিয়ে অনেক শিরোপা জিতেছি। এবার আমি মশা মেরে মানুষের মন জিততে চাই।' 

টেনিসের দক্ষতা মশার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য কিনা, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে ফেদেরার মুচকি হেসে বলেন, 'অস্ত্র জমা দেয়া যায়। ট্রেনিং কিন্তু জমা দেয়া যায় না ভায়া। প্রতিটা মশা আমার কাছে এখন থেকে টেনিস বল। কোর্ট এখন আর কোন ম্যাটার করে না। ফ্রেঞ্চ ওপেনে আমি শিরোপা একটা হলেও তো জিতেছি, নাকি?' 

এসময় তিনি পট পট করে দুইটা মশা মেরে দেখান। বোঝা গেলো, ৩৭ বছর বয়সেও  মশা মারার র‍্যাকেট হাতে দারুণ ছন্দে রয়েছেন এই সুইস সেনসেশন। 

সাম্প্রতিক সময়ে আগের মতো গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিততে না পারা নিয়ে কিছুটা আক্ষেপ এবং সামনের দিন নিয়ে দৃঢ়প্রত্যয় প্রকাশ পেল তার কণ্ঠে , 'অনেক তো ওপেন খেলা হইলো। এইবার একটু ক্লোজ খেলা  হবে। মারবো ফার্মগেটে লাশ পরবে মগবাজারে।' বলেই তিনি মশা মারার র‍্যাকেট হাতে নিয়ে সিরিয়াস মুডে ঘোরাতে শুরু করেন। দেখে মনে হচ্ছিল, উইম্বলডনের ফাইনাল হারের ক্ষোভটা এখনো যায়নি।

এদিকে ফেদেরার এর এই ইচ্ছাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন ঢাকার নগরপিতারা। সিটি কর্পোরেশনের এক উঁচুস্তরের কর্মকর্তা উচ্ছ্বসিত কণ্ঠে বলেন, 'ফেদেরার এখনো দুর্দান্ত খেলছে। বয়সের সঙ্গে তার খেলা যেন হয়েছে আরও পরিণত। এই পরিণত দক্ষতাটাই কাজে লাগিয়ে এডিস মশা নির্মূল করা হবে। আই ওয়েলকাম হিম। আমার মনে হয়, এই মুহুর্তে ফেদেরার ছাড়া কারও পক্ষে শহরকে মশামুক্ত করা সম্ভব না, হ্যামিলিনের মত বাঁশিওয়ালা দিয়েও কাজ হবে না।'

ক্যারিয়ারের বিদায় বেলায় এসে এই ধরনের সেবামূলক কাজ ফেদেরার বেশ উপভোগ করবেন, এমনটাই মনে করেন দুই সিটি কর্পোরেশনের কর্তাব্যক্তিরা। 

তবে অনেকে মনে করছেন, অবসরের পর ভবিষ্যৎ ক্যারিয়ার সিকিউর করতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ফেদেরার। এ ধরণের সম্ভাবনা অবশ্য পুরোপুরি নাকচ করে দিয়েছেন টেনিসের এই কিংবদন্তি, 'জনসেবার চেয়েও মূল ব্যাপার আমার কাছে চ্যালেঞ্জ। আমি সবসময় ক্যারিয়ারে একটা চেয়ে আরেকটা বড় চ্যালেঞ্জ নিয়েছি। বাংলাদেশে ৩৫ কোটি টাকা ব্যয়েও মশা মারা যায় না, কী প্যাথেটিক ব্যাপার! ২০টা গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের চেয়েও ঢাকাকে মশা মুক্ত করতে কয়েক লাখ বার বেশি ব্যাট চালাতে হবে, প্রয়োজন আরও বেশি স্ট্যামিনার। সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ এটাই হবে বলে আমি মনে করি।'

১৫৪ পঠিত ... ২০:০৪, জুলাই ২১, ২০১৯

Top