শিক্ষার্থীদের জন্য আউটডোর অ্যাক্টিভিটি চালু করলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

৩২৪ পঠিত ... ১৫:৩২, মে ২৫, ২০২২

DU-outdoor-activity

শিক্ষার্থীদের জন্য আউটডোর অ্যাক্টিভিটি চালু করলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদল ও ছাত্রলীগের মাঝে তুমুল সংঘর্ষ হয়। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছেন, ‘এটি সংঘর্ষ নয়, আউটডোর অ্যাক্টিভিটি। ছাত্ররা কোনোভাবেই মারামারি করছিলো না, সামনে পরীক্ষা বলে তারা তাড়াহুড়ো করে সিলেবাস শেষ করছে। ওদের মেধা আছে, কিন্তু পড়ে না!’

এটিকে সিলেবাসের অংশ অভিহিত করে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ দাবি করেন, শিক্ষার্থীদের মানসিক ও শারীরিক বিকাশ নিশ্চিত করতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এমন কো-এডুকেশন সিস্টেম চালু করেছেন।

একটি কাল্পনিক সাক্ষাতকারে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি বলেন, ‘এটি আসলে আমাদের শিক্ষা কার্যক্রমেরই অংশ। এটিকে কো-কারিকুলার অ্যাক্টিভিটি বলে। মাধ্যমিক ও নিম্নমাধ্যমিক পর্যায়ের পরে আমরা এসব থেকে দূরে সরে যাই। কিন্তু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শেকড় থেকে দূরে যেতে চায় না। আমি তো মনে করি দেশের পাবলিক প্রাইভেট সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই কারিকুলাম চালু করা উচিত।’

এ সময় তিনি বেশ কিছু ছবি দেখিয়ে আমাদেরকে বলেন, ‘এই যে দেখেন এখানে একজন শুয়ে আছে, এটা আসলে শারীরিক ব্যায়াম। গ্রাম বাংলায় আমরা এটিকে গড়াগড়ি খেলা বলি। এই ধরনের খেলায় মাটির সাথে আমাদের সম্পর্ক তৈরি করে। আরেকটি ছবি দেখিয়ে বলেন, এখানে হচ্ছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলা। আছে সাতছারা ছোড়াছুড়ি খেলাও।’

এছাড়াও দৌড় প্রতিযোগিতা, ধাওয়া-পাল্টা দাওয়া খেলাও আয়োজন করা হয়েছে বলে জানান মাননীয় ভিসি। এইসব শারীরিক এক্টিভিটি শিক্ষার্থীদের ফিট ও অ্যাথলেট করে তুলবে বলেও জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের এক প্রক্টর। তিনি বলেন, ‘খেয়াল করলে দেখবেন, ছেলেপেলেরা ইন্টারের পরই মোটা হয়ে যায়। হলের ডালডুল খেয়ে বানিয়ে ফেলে ভূড়ি। হাঁটার সময় ওদের ভূড়ি হাঁটে ওদের তিন ফিট আগে। এই ধরণের অ্যাক্টিভিটি আমাদের শিক্ষার্থীদের ফিট করে তুলবে। শুধু বিসিএস না, এবার আমরা প্রডিউস করবো দৌড়বিদ, জিমন্যাস্টিকস ও ভার উত্তোলকও।’

এই ধর্নের শিক্ষা কার্যক্রম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে অনন্য এক উচ্চতায় নিয়ে যাবেন বলে দাবি করেন ভিসি। ছাত্রলীগকে ধন্যবাদ দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় র‍্যাঙ্কিং-এ আর পিছিয়ে থাকবে না।’

৩২৪ পঠিত ... ১৫:৩২, মে ২৫, ২০২২

Top