বোলারদের জন্য বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা নিয়ে এলো ‘টেক ওয়ান গেট ওয়ান ফ্রি’ অফার

১৫০ পঠিত ... ১৪:০৫, নভেম্বর ১১, ২০১৯

ক্রিকেট যেন দিনদিন একটা ব্যাটসম্যানদের খেলা হয়ে যাচ্ছে, বোলাররা তেমন পাত্তাই পাচ্ছেন না। সেই দুরবস্থা থেকে ক্রিকেট ও বোলারদের উদ্ধার করতে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা নিয়ে এলেন ‘টেক ওয়ান গেট ওয়ান ফ্রি’ অফার। নাগপুরে এক ম্যাচের সীমিত সময়ে ভারতের বোলারদের প্রতি পরীক্ষামূলকভাবে এই অফার চালু করেন বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা। মূলত টিটুয়েন্টি ক্রিকেটে ব্যাটসম্যানদের একচেটিয়া একনায়কতান্ত্রিক দৌরাত্ম বন্ধ করে নতুন ক্রিকেটারদের বোলার হতে উৎসাহ জোগাতেই একটা উইকেটের সাথে আরেকটা উইকেট ফ্রি দেয়ার এমন অভিনব পন্থা বের করেছেন তারা।

‘টেক ওয়ান গেট ওয়ান ফ্রি’ অফারের সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে ইয়ার্কি ক্রিকেট অফার বিশেষজ্ঞ টিমের দুইজন সদস্য সমস্বরে কোরাস তুলে সিনিয়র ক্রিকেটার মুশফিকের কাছে এমন অফার সম্পর্ক জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'নতুন খেলোয়াড়দের মাঝে বোলার হতে চাওয়ার ইচ্ছাটা দিনদিন কমে আসতেছে। একে তো টিটুয়েন্টিতে ব্যাটসম্যানরা সমানে পিডায়। তার উপর মাঝে মাঝে আমরা ক্যাচ ছেড়ে দিয়ে ওদের জ্বালাটা বাড়িয়ে দেই। এভাবে চলতে থাকলে নতুন ছেলেপেলে আর বোলার হতে চাইবে না। সিনিয়র ক্রিকেটার হিসেবে আমার একটা দায়িত্ব আছে। সেজন্য আমরা এমন প্ল্যান করেছি।'

টেক ওয়ান গেট ওয়ান ফ্রি অফারের আওতায় সৌম্য সরকারকে না ডাকলেও তিনি চলে আসেন। ‘একবার প্রশ্ন করেছেন আর করা লাগবে না, এই অফারে এক প্রশ্নেই আজকে আমরা দুজনে উত্তর দিবো' দুইবার হাসি দিয়ে এমন কথা বলেই তিনি আবারো বলতে শুরু করেন, 'একটা জিনিস চিন্তা কইরা দেখেন। বোলারদেরকে উইকেট দিয়ে উৎসাহ না জোগালে, তারা টিটুয়েন্টিতে আগ্রহ হারিয়ে বোলার হতে না চাইলে আমরা ফিউচারে পিডামু কারে? বোলার ছাড়া তো পরে খেলাই বন্ধ হয়ে যাবে। তাছাড়া কর্পোরেট জগতে দেখেন না, এমন অফার ব্রান্ডিং, মার্কেটিং সব কিছুতে সাহায্য করে। কাস্টমারের সাথে সম্পর্কও ভালো করে। আপনারা শুধু উইকেট যাওয়াটা দেখলেন, ব্রান্ডিংটা দেখলেন না।'

অফারের সাথে 'ইনিংস শেষের ডিসকাউন্ট' পাওয়া সৌভাগ্যবান বোলার দিপক চাহার আমাদের দুই সদস্য বিশিষ্ট টিমকে জানান, 'এই অফারটা এত জোস। আমি ইভেন একটার সাথে দুইটা ফ্রি পাইছি। সাচ আ চিল অফার। এজন্য বাংলাদেশ টিমের ভাইয়াদেকে আমি ও আমার অন্যান্য টিমমেটদের পক্ষ থেকে দুইবার ধন্যবাদ জানাই। ক্রিকেটের ভালোর জন্য এমন ত্যাগ আমাদের টিমের ভাইয়ারাও করতে পারবে না।'

কিন্তু নতুন ওপেনার ক্রিকেটার নাঈম শেখ এই অফারে রাজি হননি। তিনি জানান, 'এই অফারটা আমার পছন্দ হয় নাই। নতুন হিসেবে আমার কাছে ছাড় দেয়া ব্যাপারটা কম কাজ করে। অফারটা সম্পর্কে যদিও আমি জানতাম, কিন্তু এই সুযোগে ক্যারিয়ারকে একটু সমৃদ্ধ করার জন্য ভাইদের কথা না মানার দুঃসাহস দেখিয়েছি।' এই পর্যায়ে তিনি একটু গলা নামিয়ে ফিসফিস করে বলেন, 'ওয়ানডে টিমে জায়গা করে নিতে হবে না মিয়া!'

এই সময় দুটো ক্যাচ মিস করা আমিনুল জানান, 'আমি আসলে অফারটা প্রথমে বুঝে উঠতে পারিনি। সেজন্য ভুলে একটা ক্যাচ মিসের সাথে আরেকটা ক্যাচ মিস অফার দিয়ে দিছি। অবশ্য এমন ভুলে আই ডোন্ট কেয়ার। অফারে অংশগ্রহণ করছি এটাই বড় কথা। নাঈম তো অংশগ্রহণই করতে পারেনি।'

চলে আসার আগে আমাদের দুইজন প্রতিনিধি এমন অফার অন্য কোনো ম্যাচে দেয়া হবে কি না জানতে চাইলে ক্যাপ্টেন হাসতে হাসতে জানান, একটু চোখ কান খোলা রাখলেই দেখবেন আমরা পর পর দু-ম্যাচে হেরে গিয়ে অফারটা ‘উইন ওয়ান গেট ওয়ান ফ্রি’ হিসেবে আগে থেকেই দেয়া শুরু করছি। হয়তো আপনারা সামনে আরো বড় বড় অফার দেখতে পাবেন।'

১৫০ পঠিত ... ১৪:০৫, নভেম্বর ১১, ২০১৯

Top