সরকারি সংস্থাগুলোতে গরু-ছাগল গণনার কাজে যোগ দিলেন কাজী মারুফ

৩২৩ পঠিত ... ১৭:৪৭, অক্টোবর ২৯, ২০১৯

দেশে জাতীয় পর্যায়ে পশুশুমারি করে গরু-ছাগলের সংখ্যা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর। তবে দেশে সকল ধরণের গরু ছাগলসহ গবাদি পশুর হিসেবে রয়েছে গরমিল। সরকারি এই দুই সংস্থার হিসেবে উঠে এসেছে ভিন্ন ভিন্ন পরিসংখ্যান। সরকারি এই দুই সংস্থার হিসেব গড়মিলের জন্য চিন্তায় আছে গরু-ছাগল সমাজও। যদি কমে যাওয়ার তথ্য সত্য হয়, তাহলে কাদেরকে হিসেবে ধরেনি? তাহলে কি তারা নিজের আইডেন্টিটি পাবে না! আর যদি বেড়ে যাওয়াটা সত্যি হয় তাহলে আবার কাদের আসল পরিচয় প্রকাশ পেয়ে গেছে? এমন মিশ্র চিন্তায় প্রায় মুষড়ে পড়তে দেখা গেছে গরু-ছাগলসহ বিভিন্ন মিশ্র সমাজকে।

তবে গরু-ছাগলসহ সব ধরণের মুষড়ে পড়া জনগণকে এই অন্ধকার থেকে আলোতে নিয়ে আসার জন্য সামনে আসছেন সফলতার সাথে কুকুর শুমারি করা কাজী মারুফ।

আপনার নিজেরই তো অংক মেলে না, আপনি এত বিশাল সংখ্যক দৃশ্যমান-অদৃশ্যমান গরু ছাগলের জটিল হিসেব ক্যামনে মিলাইবেন? ‘এই তুই কী বললি’ হুংকার ও একটা বিশেষ গালির রিস্ক মাথায় নিয়েই আমাদের প্রতিনিধির এমন জিজ্ঞাসা ছিলো কাজী মারুফের কাছে। কিন্তু আমাদেরকে অবাক করে দিয়ে তিনি অপ্রীতিকর কিছু না করে একটা মুচকি হাসি দিয়ে নিজের বিখ্যাত কালো বন্দুক টেবিলের উপর রেখে বলেন, 'এইটা দেখছেন? আগে এই স্পেশাল কালো মালটা আছিলো না! হেল্লাইগাই অংক মিলতো না! কিন্তু এখন দিন বদলাইছে। এই কালো বন্দুক দিয়া কয়েকটা ফাঁকা আওয়াজ ছাড়লেই চিপাচুপা থিকা সব লুকায় থাকা গরু-ছাগলের দল বাইর হইয়া আইবো! গুনতেও সহজ হইবো!'

এই পর্যায়ে তিনি সেই কালো বন্দুক উপরে তুলে একটি ফায়ার করেন। গরু-ছাগল বের না হলেও ভেন্টিলেটরের চিপা থেকে একটি টিকটিকি বের হয়ে আসে।

গরু-ছাগল গণনার স্পেশাল ট্রেনিংয়ের জন্য বিদেশ যেতে চান কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'যাওয়ার যদিও দরকার নাই। কিন্তু না গেলে কাজে জোশ আসবে না। সরকারি একটা ভাবসাব আছে না! ভাবসাব রক্ষা করার লাইগা খুশিতে-ঠেলায়-ঘোরতে হলেও বিদেশ যাওন লাগবো! এই ফাঁকে ফরেন লোকেশনে সিনেমার শুটিংও কইরা আসা যায়।'

তবে এই সময়ে তিনি সরকারি দুই সংস্থার হিসেবে ঝামেলা কীভাবে হলো তা নিয়েও হালকা ভাবেন। নিজের গোয়েন্দা সত্ত্বার নতুন করে বিকাশ ঘটিয়ে তিনি জানান, সমস্যা প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় ও পরিসংখ্যান ব্যুরোর ভিত্রেও থাকতে পারে। হইতে পারে, গরু ছাগলরা সেইখানে গিয়া লুকায়ে আছে। এইজন্যই অংক মিলতেছে না।'

এই পর্যায়ে তিনি গরু-ছাগলদের প্রতি উত্তেজিত হয়ে তাদেরকে 'কু*র বাচ্চা, এই কু*র বাচ্চা' বলে কয়েকবার গালি দেন।

সরকারকে গরু-ছাগলের হিসেব মিলিয়ে দিয়ে একটা নতুন ইতিহাস গড়ার ব্যাপারেও দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে কাজী মারুফ বলেন, 'সবার অংক না মিললেও, আমি এইবার অংক মেলামুই।'

৩২৩ পঠিত ... ১৭:৪৭, অক্টোবর ২৯, ২০১৯

Top