গ্রেটওয়াল নিয়ে কোন সংবাদ না করার জন্য আনন্দবাজারের কাছে অনুরোধ করলো চীন

৬২৫ পঠিত ... ১৫:৫১, মে ১৩, ২০২১

anondobazar-china

কলকাতার বিখ্যাত আনন্দবাজার পত্রিকা প্রায়ই মানুষের নামের বানানের ক্ষেত্রে এক আশ্চর্য ভাষারীতি অনুসরণ করে। যেখানে স্বরবর্ণের অদ্ভুত ব্যবহার কিংবা কোন কোন ক্ষেত্রে হারিয়ে যাওয়া—প্রচুর হাস্যরস তৈরি করে। সম্প্রতি ভারতের রাজনীতিবিদ কেজরিওয়ালের নামের ক্ষেত্রে এমন এক কান্ড করে তারা। যেখানে দেখা যায় কেজরিওয়ালের ‘ও’ হারিয়ে গিয়ে সেখানে একটা ‘ব’ যোগ করায় বানানটি হয়ে যায় কেজরিবাল।

এমন অদ্ভুত বানান চোখে পড়ার পর নিজেদের মান-সম্মান নিয়ে প্রচুর হুমকির মুখে আছে চীন। চীনের বিখ্যাত গ্রেটওয়ালের বানান আনন্দবাজার রীতিতে কেমন হবে সেটা ভাবতে গিয়েই রীতিমত মুহূর্তে মুহূর্তে শিউরে উঠছেন তারা। আনন্দবাজারকে অনুরোধ করছেন কোনভাবেই যেন গ্রেটওয়াল নিয়ে তারা কোনো সংবাদ পরিবেশন না করেন।

দীর্ঘদিন বাঙ্গালীদের সাথে বসবাস করা এমনই এক চীনা নাগরিক বলেন, ‘কেজরিওয়ালরে কেজরিবাল কইরা দিছে। বুঝতেই পারছেন আমাগো গ্রেটওয়ালরে কী কইরা দিবো। বিশ্বাস করেন ভাই, আমরা জাতি হিসেবে ছোট চুল পছন্দ করি। আনন্দবাজার যতটা গ্রেট বানাবে আমাদের চুল আসলে ওতটা গ্রেট না।'

কাঁদতে কাঁদতে এই চীনা ব্যক্তি আনন্দবাজারের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমাদের এত বড় সর্বনাশ করবেন না, আমরা সমাজে মুখ দেখাতে পারবো না।'

আনন্দবাজারের প্রতি বিনীত অনুরোধ করে অন্য এক চীনা নাগরিকও। তিনি বলেন, ‘খোদা না করুন, আনন্দবাজার যদি ভুলে একবার গ্রেটওয়াল নিয়া সংবাদ করে তাহলে আমরা হয়ে যাব গ্রেটবালের দেশ। সবাই আমাদেরকে এই নামে ডাকবে। এমন অপমানের চেয়ে আমাদের মরে যাওয়া ভালো।'

প্রয়োজনের গ্রেটওয়াল আনন্দবাজারকে দিয়ে দেয়ার বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন অনেক চীনা নাগরিক।

এদিকে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত চীনের পাশাপাশি ভারতের আগারওয়াল নামের এক ব্যক্তি, ওয়ালস্ট্রিট জার্নান, লর্ড কর্ণওয়ালিশসহ একাধিক বিখ্যাত ব্যক্তি আনন্দবাজারের কাছে তাদের নিয়ে সংবাদ প্রচার না করার শর্তে অগ্রীম ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

৬২৫ পঠিত ... ১৫:৫১, মে ১৩, ২০২১

Top