সার্চ কমিটিতে পদ না পেয়ে হতাশ অনন্ত জলিল 

২৪৮ পঠিত ... ১৮:৪৪, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০২২

Search-comette-jalil

প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে যোগ্য ব্যক্তি বাছাইয়ে আপিল বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসানকে প্রধান করে (সভাপতি) অনুসন্ধান কমিটি গঠন করা হয়েছে। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের অনুমোদনের পর গত শনিবার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। গঠিত এই অনুসন্ধান কমিটির অপর পাঁচ সদস্য হলেন বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামান, মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী, সরকারি কর্ম কমিশনের চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন এবং রাষ্ট্রপতির মনোনীত দুজন বিশিষ্ট নাগরিক সাবেক নির্বাচন কমিশনার মুহাম্মদ ছহুল হোসাইন ও কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক আনোয়ারা সৈয়দ হক। 

এদিকে এক উড়ো সূত্র থেকে জানা গেছে অনুসন্ধান কমিটিতে নিজের নাম না পেয়ে ভীষণ চটেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা অনন্ত জলিল। ‘খোঁজ দ্য সার্চ’ সিনেমা বানিয়ে অনেক আগেই তিনি এদেশের মানুষকে খোঁজাখুঁজির সাথে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন। নিজের ফেক আইডি থেকে তিনি বলেন, ‘ ‘দেশের সবচেয়ে সঙ্কটময় মুহূর্তে এভাবে আমাদের বাতিল দ্য ক্যানসেল করাটা অত্যন্ত অ্যালার্মিং দ্য আশঙ্কাজনক।’

খোঁজাখুঁজিতে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমিই কিন্তু দেশের প্রথম সিক্রেট এজেন্ট দ্য প্রতিনিধি। আমি বিদেশে মিশনে গেছিলাম। সাথে ছিলো ববি। কত কী খুঁজে নিয়ে আসছি। এতো সামান্য নির্বাচন কমিশনার।’

এই সময়ে কিছুটা উত্তেজিত হয়ে পড়েন তিনি। গেঞ্জির ভেতর হাত দিয়ে একটি প্লাস্টিকের হার্ট বের করে তিনি বলেন, ‘প্রথমে যখন নিউজটা শুনি তখন একটি তীর এসে আমার হৃদয়কে ছিদ্র করে দিয়েছিলো। পরে যখন জানতে পারি কমিটির একজন সরকারি দলের নমিনেশন চেয়েছিলো, আমাকে না রেখে তাকে রেখেছে-তখন আরো একটি তীর এসে আমার হৃদয়কে ছিদ্র করে দিয়েছিলো।’ 

এটুকু বলেই থেমে যান অনন্ত জলিল। 'কথা বলুন জলিল ভাই, কথা বলুন বলে' বেশ কয়েকবার ধাক্কা দেয়ার পর তিনি বলেন, ‘মৃত মানুষকে কখনো কথা বলতে দেখেছেন!’   

২৪৮ পঠিত ... ১৮:৪৪, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০২২

Top