মেয়েদের শাড়ি চ্যালেঞ্জের পর এবার ফেসবুকে ছেলেদের লুঙি চ্যালেঞ্জ

৭০৯ পঠিত ... ০০:৫১, এপ্রিল ৩০, ২০২০

গত কয়েকদিন সাত কালারের সাতটা শাড়ি পরে ছবি আপলোড দেয়ার এক চ্যালেঞ্জিং ট্রেন্ড চলছে ফেসবুকে। মেয়েরা চ্যালেঞ্জ দেয়া নেয়া করছে, ছেলেরাই বা থেমে যাবে কেন? কিন্তু পরবেটা কী? আলোচনা গার্লফ্রেন্ডের/বউয়ের শাড়ি, ৭ রঙের আন্ডারগার্মেন্টস ঘুরে শেষে এসে ঠেকলো বাঙালি পুরুষের জাতীয় পোষাক লুঙিতে। ফেসবুকে মুহাম্মদ তশাম্বিয়ার সাত রঙের লুঙিতে সাতটি আলাদা পোজের ছবির মাধ্যমে শুরু হওয়া এই চ্যালেঞ্জ ছড়িয়ে পরেছে সবার নিউজফিডে। যুবা-বুড়োরা গ্রহণও করেছে দারুণভাবে।

ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েদেরও প্রশংসা কুড়িয়েছে এই লুঙি চ্যালেঞ্জ। সেতু নামে এক প্রমীলা ফেসবুকার বলেন, 'মেয়েদের শাড়ি চ্যালেঞ্জের চেয়ে ছেলেদের লুঙ্গি চ্যালেঞ্জ অনেক ভালো লেগেছে। বিশেষ করে জানালার গ্রিল, দরজা ধরে ঝুলে থাকা পোজগুলো দারুণ। সবচেয়ে দারুণ সকাল বেলার আলগোছ পোজগুলো। পুরো আদিম একটা ব্যাপার আছে।'

লুঙি শাড়ির চেয়ে বেশি ফ্ল্যাক্সিবল হওয়ায় পোজ দেয়ার ক্ষেত্রেও শাড়ির চেয়ে লুঙিকেই এগিয়ে রাখছেন মেয়েরা। একজন বলেন, 'মেয়েদের শাড়ি পরে এত চ্যালেঞ্জ নেয়া যায় না। শাড়ি সামলাতেই জীবন শেষ, পোজ দিবে কখন! সেজন্য বাঁকা হয়ে দেয়া সেই ইউনিভার্সাল পোজই একমাত্র ভরসা।'

তবে দুটোর বেশি লুঙি না থাকায় বেশ ঝামেলায় পড়ছেন বেশিরভাগ পুরুষ। চ্যালেঞ্জ ঠিকঠাক এক্সেপ্ট করতে পারছেন না তারা। কারো কারো বাসায় বাবা-ছেলে তিন চারজন মিলিয়েই লুঙ্গি আছে দুটো। এমন এক লুঙিতে অনেকজন চলা পরিবারগুলো দাবি করছেন, সেম কালারের অন্য ডিজাইনের চ্যালেঞ্জের। ৭ জনের একটা মেসের এমনই এক সদস্য বলেন, 'আমাদের মেসে লুঙি আছে একটা। তাও ওইটা দিয়ে খালা ফ্লোর মুছেছে দুবার। ব্যাপার না, ওইটাই নিবো। তবে আমরা একই লুঙি পরে সাতজন পোজ দিবো। সেম কালারের আলাদা ডিজাইন আরকি।'

এদিকে লুঙি সংকটের জন্য চ্যালেঞ্জকে থেমে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করতে লুঙিপ্রেমী কিছু স্টার্টাপবাজ ছেলেরা লুঙি শেয়ারিং অ্যাপ চালুর কথাও ভাবছেন। এই অ্যাপের মাধ্যমে বিভিন্নজন নিজেদের মাঝে লুঙি শেয়ার করবেন। যদিও চর্মরোগের ঝুঁকি এড়াতে অনেকে এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন।

৭০৯ পঠিত ... ০০:৫১, এপ্রিল ৩০, ২০২০

Top