পর্দা নিয়ে মেয়রের উদ্দেশ্যে প্রফেসর এডিসের খোলা চিঠি

১৯৪ পঠিত ... ১৯:২৮, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২৩

পর্দা-নিয়ে (1)

শ্রদ্ধেয় ও প্রাণপ্রিয় মেয়র, আমাদের জানামতে, আপনি একজন স্মার্ট, পরিশীলিত, উচ্চশিক্ষিত, মানবিক মানুষ। আপনার ব্যাপারে শুধু আমরা এডিস নয়, বাকি সব মশার ধারণাই পজিটিভ। আপনি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আমাদের প্রতি আপনার সহানুভূতি, শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা প্রকাশ করেছেন। আপনি মানুষের রক্ষক হয়ে আমাদের রক্ষা না করলেও পারতেন। এর জন্য আমরা এডিসরা আপনার কাছে বিশেষভাবে চিরকৃতজ্ঞ।

মেয়র সাহেব, আমার আজকের এই খোলা চিঠির কারণ একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু, যা সম্প্রতিই আমার চোখে পড়েছে। ঠিক ধরেছেন শ্রদ্ধাস্পদেষু, আমি আজ পর্দার ব্যাপারে কথা বলতে চাই। একসময় মানুষ গাছের পাতা দিয়ে নিজের লজ্জাস্থান ঢাকতো। লজ্জাস্থান ছাড়া সম্পূর্ণ শরীর ছিলো আমাদের চারণভূমি। সেই মানুষ ধীরে ধীরে সভ্যতার নামে নিজেদের গুটিয়ে ফেলেছে কত ধরনের কাপড়ের নিচে। আমরা এখন তাদের শরীরে বসেও কোনো খাদ্য জোগাড় করতে পারি না।

খাবার সামনে নিয়ে ক্ষুধার্ত অবস্থায় দিনযাপনের মতো কষ্ট আর কী আছে? আমরা হয়তো মানুষ নই, তবে আমাদেরও প্রাণ আছে, আবেগ-অনুভূতি আছে। আপনি আমাদেরকে শহরে যেহেতু রেখেছেনই, খাওয়া-দাওয়ারও ব্যবস্থা করে দিন।

আমরা মানুষকে আত্মীয় মনে করি। এদিকে মানুষের আচরণ দেখলে মনে হয় আমরা তাদের শত্রু। আমাদের বিরুদ্ধে তাদের কত প্রতিরোধ! জানেন তো আত্মীয়তার বন্ধন ছিন্নকারীর পরিণাম কী হয়, তাদেরও একবার মনে করিয়ে দেবেন।

মাননীয় মেয়র, আপনার শহরের পর্দানশীল মানুষদের বলুন ফুলপ্যান্ট না পরে হাফপ্যান্ট পরতে, ফুলহাতা না পরে স্লিভলেস, ক্র্যাপটপ পরতে। যদি সবসময় সম্ভব না হয়, দিনের একটা নির্ধারিত সময়ে পরা বাধ্যতামূলক করে দিন। তাহলে অন্তত একবেলা আমরা খেয়ে বেঁচে থাকতে পারব।

ভুলে যাবেন না, আমাদের ভরণপোষণের দায়িত্ব পুরোটাই আপনার। আমাদের অভুক্ত রেখে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়ার দায় আপনাকে পরলৌকিকভাবে নিতেই হবে।

কতই না উত্তম হত, যদি আমার এই কথাগুলো আমাদের সম্মানিত মেয়রের কাছে পৌঁছাতো। আমরাও মন ভরে দোয়া করতাম এবং গর্ব করে বলতে পারতাম, উদাহরণ হিসেবে দেখাতে পারতাম... আমাদেরও প্রিয় একজন মেয়র আছেন।

১৯৪ পঠিত ... ১৯:২৮, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২৩

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি


Top