আকবর-বীরবল ও বুক সেন্সরশিপ

১৭৮ পঠিত ... ১৭:০০, জানুয়ারি ২৩, ২০২৩

Akbor-o-birbol

লেখা: ইমরুল কায়েস

 

আকবর: আমার পিতার বড্ড ইচ্ছে ছিল বাংলা মুলুকের বর্ষা দেখার।

বীরবল: আফসোস! কবি হয়েও মহান সম্রাট হুমায়ুন সে সুযোগ পাননি।

আকবর: পিতার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আমি একটি সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছি।

বীরবল: কী সে সিদ্ধান্ত সম্রাট?

আকবর: আমি একটি কিতাব লিখবো, বাংলায়। শুনেছি বাংলা মুলুকে বই মেলা আসন্ন। তুমি প্রকাশকের খোঁজ করো!

বীরবল: গোস্তাকী মাফ করবেন জাহাঁপনা! তা, কোন বিষয়বস্তুকে ভিত্তি করে আপনি কিতাব রচনা করবেন বলে মনস্থির করেছেন?

আকবর: ভূ-ভারতে মোঘল সাম্রাজ্যের বিজয়গাথা নিয়ে লিখবো বলে ঠিক করেছি। 'বাবরের ভারত জয়' কিতাবের নাম হিসেবে কেমন হবে?

বীরবল: 'বাবরের ভারত জয় বাংলা' হলে একটু সুবিধা হবে বলে মনে হয়।  

আকবর: এ আবার কেমন নাম হলো শুনি?

বীরবল: ওখানে ইদানিং বইকে নায়িকাদের মতো অনেক স্ক্রিনিং টেস্ট দিতে হচ্ছে। তা না হলে, ফুল পাখি নিয়ে আই লাভ ইউ তুই লাভ ইউ টাইপ কোনো শায়েরির বই লিখুন। চলবে। সেন্সর বোর্ড আটকাবে না।

আকবর: পেয়েছি। শাহজাহানের মমতাজ জয়! এবার হবে?

বীরবল: উঁহু! আবারো একই ভুল করছেন সম্রাট। কিতাবের নাম হবে, শাহজাহানের মমতাজ জয় বাংলা।

আকবর: তোমার কথার আগামাথা আমি কিচ্ছু বুঝতে পারছি না।

বীরবল: কী করে পারবেন জাহাঁপনা! নিজের উপর সেল্ফ সেন্সরশিপ আরোপ করেছি। মাঝেমধ্যে, নিজের কথা নিজেই বুঝি না।

আকবর: করলাম না বই প্রকাশ। মুঘল সাম্রাজ্যের হারেম নামে কিতাব লিখবো। মুঘল পাব্লিশার্স থেকে প্রকাশ করবো।

বীরবল: সেটাই মঙ্গলজনক হবে জাহাঁপনা। আপনার নিজের জন্যেও, মুঘল সাম্রাজ্যের জন্যেও। এমনকি, চটি গল্প হিসেবেও অনেক প্রাপ্তবয়স্ক সাইটে দেয়া যাবে কোনপ্রকার সেন্সরশিপ ছাড়াই।

১৭৮ পঠিত ... ১৭:০০, জানুয়ারি ২৩, ২০২৩

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি


Top