রঙ্গে ভরা বঙ্গদেশ: পাসপোর্ট বোর্ডিং পাস ছাড়াই প্লেন চড়ার অভিজ্ঞতা যে শিশুর

১৩৯ পঠিত ... ১৭:৪২, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২৩

রঙ্গে-ভরা-বঙ্গদেশ

পাসপোর্ট, বোর্ডিং পাস ছাড়া কি প্লেনে চড়া সম্ভব? উত্তর হবে ‘না’। কিন্তু এমন অসাধ্যই সাধন করেছে জুনায়েদ নামের এক শিশু। গত সোমবার রাতে শাহজালাল বিমানবন্দরে সবার চোখকে ফাঁকি দিয়ে কুয়েত এয়ারওয়েজের একটি বিমানে উঠে পড়ে সে। বিমান উড্ডয়নের আগমুহূর্তে সে বিমানের দরজার আশপাশে ঘোরাঘুরি করতে থাকলে তাকে বিমানবালা সিটে গিয়ে বসতে বললে সে সন্দেহজনক আচরণ শুরু করে। পরে কেবিন ক্রুদের সন্দেহ হলে তাকে এভিয়েশন সিকিউরিটির (এভসেক) কাছে হস্তান্তর করেন তারা।  

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ১০ জন কর্মকর্তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ। গঠন করা হয়েছে তদন্ত কমিটিও। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে বিমানে চড়ার মতো জটিল ৮-১০টি ধাপ পেরিয়ে কারো কাছে কোনো বাধা না পেয়েই বিমানে যদি জুনায়েদের মতো শিশু চড়ে বসতে পারে, তবে সাধারণ যাত্রীদের নিরাপত্তা কোথায়?  যে কারও পক্ষেই তো তাহলে অনায়াসেই বিমানে চড়ে বসা সম্ভব। এ কেবল আমাদের বঙ্গভূমেই হয়তো সম্ভব! দেশের রিজার্ভের নিরাপত্তা ব্যবস্থা হয়তো বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থার দিকে বন্দুক তাক করে এখন অভিনেতা জসিমের মতো বলতেই পারে, ‘এই শালার ঘরে শালা কম্পিটিশন লাগাইতে চাস, কম্পিটিশন?’ অবশ্য জুনায়েদকে দোষই বা দেই কী করে? সে না হয় না বুঝেই ঘটনাটি ঘটিয়েছে, কিন্তু হাজার কোটি টাকা পাচারকারীরা এবং পরিবারের সদস্যরা তো ঠিক এভাবেই সবার চোখের সামনে প্লেনে চড়ে চলে যাচ্ছে আর হেঁটে বেড়াচ্ছে ইউরোপের রাস্তায়।

ভোট দিতে পারছেন না আপনার ভোট আরেকজন দিয়ে দিচ্ছে, মতপ্রকাশ করতে পারছেন না, হোস্টেল নিয়মিত সহমত ভাইদের আদর অ্যাপ্যায়নের শিকার হচ্ছেন, কোনো চিন্তা নেই। জুনায়েদকে নিজের আদর্শ হিসেবে মেনে নিয়ে চড়ে বসুন কোনো একটা প্লেনে। ভিসা, পাসপোর্ট, বোর্ডিং পাস কিছুই লাগবে না। কারণ বিমানবন্দরের লোকজন দেশের নেতাদের মতো ঘুমে থাকে, দেশ কিংবা বিমানবন্দরের নিরাপত্তা যাই রসাতলে যাক, তাদের এসবে হিসাব থাকে না।

১৩৯ পঠিত ... ১৭:৪২, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২৩

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

কৌতুক

রম্য

সঙবাদ

স্যাটায়ার


Top