ফেসবুক ছাড়ার বিবিধ উপায়

২৩৯ পঠিত ... ১৭:২৫, আগস্ট ০৫, ২০২৩

ফেসবুক-ছাড়ার-বিবিধ-উপায়

প্রতিবার ভাবেন ছেড়ে দেবেন, কিন্তু পারেন না। মাঝে মাঝে বুঝে উঠতে পারেন না, এটা কি ফেসবুক? নাকি এক্সের স্মৃতি? ছাড়তে পারছি না কেন? আপনাদের জন্য পার্মানেন্ট ফেসবুক ছাড়ার সলিউশন…

 

১। মোবাইল থেকে অ্যাপটি আনইন্সটল করুন। ট্যাবলেট থাকলে সেখান থেকেও আনইন্সটল করুন। সোজা কথা আরামে চ্যাগায় বসে/শুয়ে ফেইসবুকিং-এর সকল উপায় বন্ধ করুন। ফিজিকেলি অ্যাক্টিভ হয়ে ল্যাপটপ কিংবা ডেস্কটপে ব্যবহার করুন। খেয়াল রাখবেন যাতে কোনও অবস্থায় বিছানা অথবা সোফায় বসে ল্যাপটপে ফেইসবুক ব্যবহার না করা হয়।

 

২। ধীরে ধীরে ফেসবুক মেসেন্জারের ব্যবহার কমিয়ে দিন। সম্ভব হলে বন্ধ করে দিন এবং আনইন্সটল করুন। পরিচিতদের মেসেন্জার থেকে পছন্দের মেসেজিং অ্যাপের দিকে সরিয়ে নিন। এখানে বলে রাখা ভালো যে কিছু ঘাউড়া এবং/অথবা অলস পাবলিকের এবং অনলাইন শপের  কারণে মেসেন্জারের মতন একটা বদখত, জঘন্য, বাজে অ্যাপের হাত থেকে রেহাই পাওয়া কঠিন কিন্তু ইট’স ওর্থ দ্য এফোর্ট।

 

৩। এরপরও যদি ব্যবহার না কমে তাহলে ভেঙে পড়ার কোনও কারণ নেই। বিখ্যাত অ্যামেরিকান রক ব্যান্ড ঈগলসের ‘হোটেল ক্যালিফোর্নিয়া’ গানের নিম্নোক্ত লাইনগুলো স্মরণ করুন:

‘… You can check out any time you like

But you can never leave.’

মৃত্যু কিংবা পারসোনাল ট্র্যাজেডি ছাড়া বেশির ভাগ মানুষই চিরতরে ফেইসবুক ছাড়তে পারে না। নিজের সীমাবদ্ধতা মেনে নিয়ে ফেইসবুক ব্যবহার ছাড়ার বদলে ব্যবহার কমাতে মনোনিবেশ করুন।

 

৪। দিনে কেবলমাত্র একটি নির্দিষ্ট সময় ছাড়া ফেইসবুক ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। ব্যক্তি অভিজ্ঞতার আলোকে বলতে পারি রাতে ফেইসবুক ব্যবহার করার চেয়ে দিনে ব্যবহার করা বেটার। হাতে সময় থাকলেই তর্ক-বিতর্ক, ‘কন্সট্রাক্টিভ ডিসকাশন’ইত্যাদিতে লিপ্ত থাকার একটা ইচ্ছা হয় এবং নিজেকে সামলাতে না পারলে রাতের ঘুম নষ্ট হয়।

 

৫। ৪-এ সফল হলে সপ্তাহে কিছু নির্দিষ্ট দিন ছাড়া ফেইসবুক ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। আইডিয়েলি সপ্তাহে ৩ দিন বা তার কমে (যেমন উইকেন্ড) নিয়ে আসতে পারলে ভালো হয়। অন্তত নিজেকে প্রবোধ দিতে পারবেন যে ফেইসবুকে আপনি ‘বেশির ভাগ সময়’ নষ্ট করেননি।

 

৬। ফেসবুক ব্যবহার ধীরে ধীরে গড়ে দৈনিক ১-২ ঘণ্টায় নামিয়ে আনুন এবং তাতেই খুশি থাকুন।

 

৭। এরপরও মানবজাতি/দেশ/জাতির স্বার্থে কিছু লেখার ইচ্ছা হলে আরেক বিখ্যাত অ্যামেরিকান রক ব্যান্ড গানস ‘এন রোসেসের ‘Live and Let Die’ গানটির টাইটেলের কথা স্মরণ করুন (এর চেয়ে গভীরে যাওয়ার প্রয়োজন নেই)।

 

৮। যখনই দেখবেন ফেইসবুক আপনার স্ট্রেস লেভেলকে সরাসরি বাড়িয়ে দিচ্ছে তখনই ফেসবুকিং-এর মাত্রা কমিয়ে আনুন। মনে রাখবেন এত্ত এত্ত নিউজ, ইনফরমেশন, ওপিনিয়ন, ইনসাইট, এক্সপেরিয়েন্স জানার কোনও প্রয়োজন আপনার নাই।

২৩৯ পঠিত ... ১৭:২৫, আগস্ট ০৫, ২০২৩

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

কৌতুক

রম্য

সঙবাদ

স্যাটায়ার


Top