৪৫ বছরের পুরনো স্যুপ

৫২৩ পঠিত ... ১৭:২৬, মে ২১, ২০২৩

Soup

আপনি সর্বোচ্চ কতদিন পুরনো খাবার খেয়েছেন? দুই কিংবা তিনদিন? কিন্তু থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে গেলে সুযোগ মিলবে ৪৫ বছর পুরনো স্যুপ খাওয়ার। নাক সিটকানো বা ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই। কারণ আসলে ৪৫ বছর আগের কোনো স্যুপ আপনাকে খাওয়ানো হবে না, খেতে পারবেন একদম ফ্রেশ টাটকা স্যুপই। কিন্তু এই স্যুপ প্রস্তুতে প্রতিদিনই আগের দিনের কিছুটা স্টক ব্যবহার করা হয়, এবং যেটি হয়ে আসছে প্রায় ৪৫ বছর ধরে। তাই টেকনিক্যালি বলতে গেলে এই স্যুপটি আজকে খেলেও ৪৫ বছর আগের স্টকের কিছুটা হলেও আপনার বাটিতে রয়েছে।  

ব্যাংককের এককামাই নামক এলাকায় ওয়াত্তানা পানিচ নামের এই দোকানটি বর্তমানে চালাচ্ছেন দোকানের তৃতীয় প্রজন্মের সত্ত্বাধিকারী নাত্তাপং কাউয়ানতাওং। ওয়াত্তানা পানিচের এই স্যুপ খেতে স্থানীয়দের পাশাপাশি বিদেশীদের আনাগোনাও ঘটে এই দোকানটিতে। ৬০ বছর আগে চালু হওয়া বিফ স্যুপের এই দোকানটিতে নাত্তাপং দাদার পর এখন সেখানে নাত্তাপং-এর সাথে তার বাবা-মাও সমানতালে কাজ করে যাচ্ছেন। চাইনিজ মশলা, কিছু ঔষধি উপাদান এবং গরুর মাংসের মিশেলে তৈরি এই স্যুপ প্রসঙ্গে এর এক অস্ট্রেলিয়ান কাস্টমার ক্রিস ব্র্যাডি বলেন, ‘এটি বিশ্বের সেরা বিফ স্যুপ এবং এর আগেরদিনের রেখে দেওয়া স্টকই এই স্যুপটিকে আরও বেশি সুস্বাদু করে তোলে।‘  অস্ট্রেলিয়ান এই ব্যবসায়ী সিঙ্গাপুরে থাকেন এবং বছরে ২/৩ বার তিনি ব্যাংককে আসেন এবং ব্যাংককে এলে কোনোভাবেই তিনি এই স্যুপ খাওয়া মিস করেন না।

৫২৩ পঠিত ... ১৭:২৬, মে ২১, ২০২৩

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

কৌতুক

রম্য

সঙবাদ

স্যাটায়ার


Top