বাসায় কেউ নেই বলে বাসায় ডেকে এনে ভুঁড়ি পরিষ্কার করানোর অভিযোগ প্রেমিকাদের ওপর

১৯৫ পঠিত ... ১৭:৩৯, জুন ১৩, ২০২৪

1

চারদিকে ইদুল আযহার আমেজ। কেউ নিজেরা গরু কিনেছেন, কেউ আবার ভাগীদার হয়ে কোরবানি দিয়েছেন। ইদ মানেই আনন্দ ভাগাভাগি করে নেওয়া। তবে ইদ কিংবা অন্যান্য উৎসবগুলোতে নারীরা আসলেই কতটুকু অংশগ্রহণ করতে পারেন? রান্নাঘরের কাজ কি শুধুই তাদের? আধুনিক সমাজে এই দৃশ্য কতটুকু সভ্য?

তবে সময়ের সাথে সাথে বদলে গেছে মানুষ। ধীরে ধীরে চতুর হয়ে উঠছেন নারীরাও। ঠিক এ কারণেই অভিযোগ এসেছে প্রেমিকাদের নামে। শোনা যাচ্ছে, বাসায় কেউ নেই বলে বাসায় ডেকে নিয়ে প্রেমিককে দিয়ে ভুঁড়ি পরিষ্কার করাচ্ছেন প্রেমিকারা। প্রথমে এমন ঘটনা শুধু ঢাকার আশেপাশে শোনা গেলেও এখন সারাদেশের প্রেমিকদের মুখে একই অভিযোগ।

রুবেল নামের এক তরুণ রাগে ফুঁসতে ফুঁসতে বলেন, ‘আমাকে স্বল্প বসনে ভিডিও কলে রেখে বলে, বাসায় কেউ নাই। আসো প্লিজ। আমি ফিফা খেলা বাদ দিয়ে তাড়াতাড়ি আসছি। অবস্থাটা বুঝেন। শাওয়ার টাওয়ার নিয়ে আসার পরে সে বলে, তোমার জন্য সারপ্রাইজ.. চোখ বন্ধ করো। চোখ বন্ধ করার পরে দেখি সে ভুঁড়ি নিয়ে আসছে। মানে আমি বিশ্বাসই করতে পারলাম না ব্যাপারটা...’

ফারুক নামের আরেক তরুণ বলেন, ‘আমার ঘটনা আরও করুণ। গরুর ভুঁড়ি পরিষ্কার করার পর খাসির ভুঁড়ি দেখায়া বলে, তুমি করবা নাকি আমার বেস্ট ফ্রেন্ডকে ডাক দিব? ওকে ডাক দিলে কিন্তু শুধু ভুঁড়ি পরিষ্কারই হবে না—মনে রাইখো। আমি বাধ্য হয়ে সেটাও করলাম...’

তবে সবচেয়ে করুণ কাহিনী শোনা যায় আদনান নামের এক যুবকের কাছ থেকে। তিনি বলেন, ‘প্রেমিকার বাসায় যায়া দেখি আমি আর ওর জাস্ট ফ্রেন্ড,দুইজনই আছি। এক গামলায় গরুর ভুঁড়ি আর আরেকটাতে মগজ। আমাকে ভুঁড়ি আর বেস্ট ফ্রেন্ডকে মগজ পরিষ্কার করতে দিয়ে বললো, ‘যার যেটা নেই, তাকে আর সেটা পরিষ্কার কর‍তে দিলাম না...’

 

১৯৫ পঠিত ... ১৭:৩৯, জুন ১৩, ২০২৪

Top