বাংলাদেশের লোডশেডিং কমাতে নিজেদের শরীরের বিদ্যুৎ দান করতে চায় ইলেকট্রিক ইল মাছেরা।

২৩৭ পঠিত ... ১৬:৪০, জুন ০৭, ২০২৩

Eal-fish

লোডশেডিং নিয়ে দেশে রীতিমতো চলছে হাহাকার। জনজীবন বলতে গেলে একপ্রকার অচলই হয়ে যেতে শুরু করেছে রোজকার লোডশেডিঙে। বাংলাদেশের মানুষের এই অসহায়ত্ব দেখে এবার এগিয়ে এলো সামুদ্রিক ইল মাছের দল। জানা যায়, বাংলাদেশের লোডশেডিং সামাল দিতে নিজেদের শরীরের বিদ্যুৎ দান করতে চায় ইলেকট্রিক ইল মাছেরা। তবে কী উপায়ে তাদের শরীর থেকে এই কারেন্ট, জাতীয় গ্রীডে যোগ করা হবে সেটি নিয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি তারা।

ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ে আমাদের ডুবুরি প্রতিবেদক সমুদ্রে ডুব দিয়ে এক ইল মাছের কাছে গেলে তিনি আমাদের বলেন, ‘ভুপেন হাজারিকা স্যার বলে গিয়েছিলেন মানুষ মানুষের জন্য কিন্তু আমরা তাকে ভুল প্রমাণ করতে চাই। আমরা দেখাতে চাই শুধু মানুষ না মাছেরাও মানুষের জন্য। শুনেছি আপনাদের দেশের মানুষের শরীরের বিশেষ জায়গায় নাকি অনেক কারেন্ট তারপরেও এত লোডশেডিং কেন? যাই হোক আমাদের দাঁড়ানোর তো কোনো অপশন নেই, আমরা আপনাদের পাশে ভাসতে চাই। ইতিমধ্যেই আপনাদের বিদ্যুৎ অফিসের লোকদের সাথে কথা হয়েছে এখন দেখি কীভাবে তারা আমাদের শরীরের কারেন্ট জাতীয় গ্রীডে নিতে পারে।‘

বিদ্যুৎ অফিসের এক কর্মকর্তা বনানীর ১৮ নম্বর রোডের নিজ বাসা থেকে আমাদের বলেন, ‘ইল ভাইদের মানবিকতা দেখে আমরা যারপরানই মুগ্ধ। আমাদের গবেষক দল বিষয়টি নিয়ে ল্যাবে ভুয়া গবেষণা শুরু করেছে, পাশাপাশি বিদ্যুৎ অফিস থেকে কয়েক সদস্যের দল বিদেশ ভ্রমণে বিষয়টি সম্পর্কে প্র্যাকটিক্যাল ধারণা নিচ্ছে। আশা করছি আগামী সপ্তাহ নাগাদ আমরা ইল ভাইদের কারেন্ট ব্যবহার শুরু করতে পারবো।‘

 

২৩৭ পঠিত ... ১৬:৪০, জুন ০৭, ২০২৩

Top