একটি অদেশী রূপকথা: রাজাদের দরবারে অযোগ্য লোক রাখা যখন থেকে শুরু হলো

৬৬২ পঠিত ... ১৮:৫৯, এপ্রিল ২০, ২০২০

অলংকরণ: তাইসির

 

দূরদেশে এক রাজা থাকতেন। তিনি জ্ঞানী রাজা। তাঁর জ্ঞানের সান্নিধ্য পেতে ছুটল তিন মানুষ।

রাজার কাছে পৌঁছেই তিন মানুষ নিজেদের ইচ্ছা প্রকাশ করল। প্রথমজন বলল, হে রাজন, আমি শুনেছি আপনি মানুষের সব জানেন। আমিও জানতে চাই। আমাকে আপনার দরবারে রাখুন দয়া করে।

দ্বিতীয়জন বলল, রাজাধিরাজ, আমি শুনেছি আপনি মহাকাশ আর গ্রহ-নক্ষত্রের সব জানেন। আমিও মহাকাশ গ্রহ-নক্ষত্রের সব জানতে চাই। অনুগ্রহ করে আমাকে আপনার রাজদরবারে ঠাই দিন।

শেষজন বলল, নৃপতিতাপস, আমি অন্যের কিছুই জানতে চাই না। আমি শুধু নিজেকে জানতে চাই। এটা খুবই স্বার্থপরের মতো কথা নিশ্চয়... কিন্তু আপনি আমাকে আমার নিজেকে জানার সুযোগ করে দিতেন যদি!

রাজা বললেন, যে নিজেকে জানতে চায় সে-ই আসলে সমগ্র জানতে চায়। নিজেকে জানতে চাওয়ার জন্য তার আমাকেও প্রয়োজন পড়বে না। সে যে কোনো স্থান-কাল-পাত্রে নিজেকে জানতে পারবে! আর তার ভেতর দিয়েই সমগ্রটা জানবে!

সন্ত শেষজনকে পাঠিয়ে দিলেন। বললেন, তুমি যোগ্য। তোমার এখানে না, মানুষের মধ্যে থাকতে হবে! সেখানেই তোমার কাজ!

শেষজন চলে গেলে প্রথম দুইজন খুব খুশি হলো। তারা এখন রাজার কাছ থেকে জ্ঞানার্জন করতে পারবে। কিন্তু দরবারে ডাকার আগেই রাজা তাদের দুটো সেদ্ধ আলু দিলেন। বললেন, যাও, ভর্তা করে নিয়ে আসো...

দুজনে বেশ সময় নিয়ে ভর্তা করল আলুর। তারপর থালা সাজিয়ে-গুছিয়ে রাজার পাতে দিলো। রাজা মুখে তুলল দুটো ভর্তাই। প্রথম জনের ভর্তায় আলু একেবারে মিশে গেছে। কিন্তু দ্বিতীয় জনের ভর্তায় আলু কিছু শক্ত রয়ে গেছে।

খাওয়া শেষে রাজা প্রথম জনকে বললেন, তোমার অনেক ধৈর্য্য। তুমি খুব ভালো করে আলু মিশিয়ে ভর্তা করেছ। যে-ব্যক্তির এতটা ধৈর্য্য আছে তার আসলে আমাকে প্রয়োজন নেই। তুমি বরং মানুষের কাছে যাও। তাদের তোমাকে প্রয়োজন।

প্রথমজন খুশিমনে চলে গেল। রইল দ্বিতীয় জন। রাজা তার দিকে তাকিয়ে বললেন, তুমি নিজেকে জানার আগে, দিন দুনিয়া জানার আগেই মহাকাশ জানতে চাও... এর মানে তোমার জ্ঞানের এখনো কোনো তল তৈরি হয় নি। তুমি আলুভর্তার মতো একটা কাজও ধৈর্য্য নিয়ে নিয়ন্ত্রণ করতে পারো না। আমাকে তোমার প্রয়োজন। তোমাকেও আমার প্রয়োজন। কারণ তোমার মতো অযোগ্য লোক মানুষজনের মধ্যে থাকা বিপদের। অযোগ্যরা, যোগ্যদেরও অযোগ্য করে তোলে। তুমি আমার সাথে থাকো, আমার দরবারে!

সেই থেকে রাজাদের দরবারে অযোগ্য লোক রাখা শুরু হয়েছে। যেন তারা মানুষের সাথে মিশে মানুষকে অযোগ্য না করে তুলতে পারে!

৬৬২ পঠিত ... ১৮:৫৯, এপ্রিল ২০, ২০২০

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি


Top