নৈশভোজের সঙ্গে বিভিন্ন সাইজের লাঠির যা সম্পর্ক

৪৩৯ পঠিত ... ১৯:০৭, মে ১২, ২০১৯

এক লোক এক প্রত্যন্ত এলাকায় ঘুরতে যায়। এলাকার মানুষ খুব আতিথেয়তা প্রবণ। রাতে লোকটিকে তারা নৈশভোজ পরিবেশন করে। কিন্তু খাবারের পাশে একটি ছয় হাত লম্বা লাঠি রাখে।

অতিথি ঘাবড়ে যায়। সে জিজ্ঞেস করে, এই লাঠি কেন রেখেছেন, ওটা সরিয়ে রাখুন। কিন্তু সবাই বলে, এটা আমাদের অনেক প্রাচীন ঐতিহ্য। লাঠি রাখতেই হবে।

অতিথি বলে, কিন্তু কেন এই ঐতিহ্য তা আগে বলুন; তারপর খাবো।
কেউ এই কেন'র উত্তর দিতে পারে না। অনেক খুঁজে পেতে ষাট বছর বয়েসী এক প্রবীণকে নিয়ে আসে।

প্রবীণ বলেন, এ কী করেছো; লাঠিটাকে তিন হাত লম্বা হতে হবে। ঐতিহ্য পালন ঠিকঠাক করে করো। নতুন প্রজন্ম একেবারে রসাতলে গেলো।

অতিথি প্রবীণকে জিজ্ঞেস করে, কিন্তু এই লাঠি রেখেছেন কেন! এর ব্যবহার কী নৈশভোজে?

প্রবীণ গম্ভীরভাবে বলেন, এ আমাদের শেকড় সঞ্জাত সংস্কৃতি।
অতিথি বলেন, লাঠি কেন রাখতে হয়; এর কারণ না জেনে আমি খাবো না।

সবাই অনেক কষ্ট করে খুঁজে আনে, পঁচাত্তর বছর বয়েসি এক প্রবীণকে।

তিনি সবাইকে ধমক দিয়ে বলেন, মূল্যবোধের এ কি অবক্ষয়! অতিথিকে খাবার সময় এক হাত লম্বা লাঠি খাবারের পাশে রাখতে হবে। সেখানে তোমরা এ কী করেছো! তোমাদের জন্য সমাজটা রসাতলে যাবে।

অতিথি প্রবীণকে জিজ্ঞেস করেন, কিন্তু এক হাত লম্বা লাঠিই বা কেন! নৈশভোজের সঙ্গে লাঠির সম্পর্ক কী!

প্রবীণ বলেন, ঐতিহ্যে ভরসা রাখুন; এ নিয়ে প্রশ্ন তোলাও অন্যায়!

অতিথি জেদ করে, কিন্তু লাঠি রাখার কারণ না জেনে আমি অন্নগ্রহণ করবো না।

অগত্যা সবাই মিলে এক নবতিপর প্রবীণকে নিয়ে আসে। উনি এসেই বলেন, করেছো কী! লাঠি কেন এখানে! এটা কেটে এটা থেকে পাতলা কাঠি বের করে আনো। অতিথি খাবার পরে দাঁতে আটকে যাওয়া খাদ্য কণা যাতে সেটা দিয়ে সহজেই বের করে আনতে পারেন।

৪৩৯ পঠিত ... ১৯:০৭, মে ১২, ২০১৯

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি


Top