ব্ল্যাকআউটে পড়তে না পারার জন্য আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষায় অটোপাশ চায় পরীক্ষার্থীরা

২৪০ পঠিত ... ১৭:০৩, অক্টোবর ০৫, ২০২২

Auto-pass

অনাকাঙ্ক্ষিত কারণে গতকাল সারাদেশের বিভিন্ন স্থানে ছিলো ব্ল্যাকআউট। আকস্মিক এই ঘটনায় অবাক হয়েছেন সবাই। পূর্বপ্রস্তুতি না থাকায় জনজীবনে সৃষ্টি হয়েছে নানা রকম সমস্যা। সমস্যা জড়িত এই মানুষদের একদল হচ্ছে আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা।  

কিছুদিন পরই এইচএসসি পরীক্ষা। তারমধ্যে হঠাৎ এই ব্ল্যাকআউটে হতবিহ্বল হয়ে পড়েছেন শিক্ষার্থীরা। পড়তে না পারার জন্য তারা চায় অটোপাশ। এ বিষয়ে শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বললে তারা বলেন, ‘সামনেই আমাদের এইচএসসি পরীক্ষা। আমরা এখন খাওয়া ঘুম সব বাদ দিয়ে দিনরাত পড়ে যাচ্ছি, যাতে  কোনোভাবেই এ প্লাস মিস না হয়। এরমধ্যে এভাবে লম্বা সময়ের জন্য ব্ল্যাকআউট হয়ে যাওয়াতে আমরা সারাদিন পড়তে পারিনি। এতে আমাদের বিরাট ক্ষতি হয়ে গেছে। ক্যামিস্ট্রির দুইটা চ্যাপ্টার পড়া পিছিয়ে গেছি। এখন এই ক্ষতিপূরণ কে দেবে? আমরা অটোপাশ চাই।’

এক শিক্ষার্থীতো কাঁদতে কাঁদতে জানালেন, ‘গতকাল রাতেই পুরো সিলেবাস শেষ করে ফেলার প্ল্যান ছিলো। কিন্তু ব্ল্যাকআউটের কারণে পারিনি। এখন আর সিলেবাস শেষ করার প্ল্যানও করতে পারছি না। যে প্ল্যান একবার চলে যায় সে তো আর ফিরে আসে না, বলেছিলেন নিউটন।’

শুধু যে শিক্ষার্থীরাই ক্রুদ্ধ তা নয়। রাগান্বিত তাদের ফ্যামিলি মেম্বার আর পাড়া প্রতিবেশীরাও। এক পরীক্ষার্থীর মা-য়ের সাথে সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘কাল ইলেক্ট্রিসিটি না থাকায় ওদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। দুইটা ব্যাচে যেতে পারেনি, এক্সাম মিস গেছে, বাসার স্যার আসতে পারেনি। এভাবে তো পরীক্ষার্থীরা পড়ায় মনোযোগ হারিয়ে ফেলেছে। ওরা তো মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছে। এখন কিছুতেই ওরা পরীক্ষা দিতে পারবে না। এটা ওদের ক্যারিয়ারের প্রশ্ন। অটোপাশ ওদের দিতেই হবে।‘

২৪০ পঠিত ... ১৭:০৩, অক্টোবর ০৫, ২০২২

Top