ইন্টারনেটে এনএসইউ ও ব্র‍্যাকের সংঘর্ষ, প্রায় অর্ধ শতাধিক ফেসবুকার আহত

৮৯০ পঠিত ... ১১:১৬, অক্টোবর ০৫, ২০২২

NSU-BRAC

কিছুদিন আগে বাংলাদেশের বিখ্যাত প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি ব্র‍্যাকের প্রথম বর্ষের নবীন বরণ তথা ওরিয়েন্টেশনের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয় মহাখালীর কোন এক ভাড়া করা হলে। ওরিয়েন্টেশনে ফার্স্ট ইয়ারের যথারীতি স্বাভাবিক পরিমাণের নাচানাচি-লাফালাফি দেখে এক এনএসইউ-র ছাত্র তার ফেসবুকে পোস্ট দেন, ‘মহাখালীতে একটা ভার্সিটি আছে যাদের ওরিয়েন্টেশন হয় ভাড়া করা হলে। ওইটা নিয়া আবার তাদের ছাত্রছাত্রীরা তুমুল তাফালিং করে। ক্যাম্পাস পাইলে না জানি কি করতো!’

সেই পোস্টের সূত্র ধরে শুরু হয়ে যায় এক অনলাইন যুদ্ধ। কমেন্ট থেকে স্ট্যাটাস, সবখানে চলছে এনএসইউ ও ব্র‍্যাকের সংঘর্ষ। দ্য ডেইলি প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি নিউজের তথ্যমতে, এই সংঘর্ষে মানসিকভাবে আহত হয়েছেন দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী।

ব্র‍্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র সামিন ইয়াসার নিজের ফেক আইডি থেকে প্রতিপক্ষ এনএসইউ শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘ব্র‍্যাকের মাঠ না থাকতে পারে, অনুষ্ঠানের জায়গা না থাকতে পারে, কিন্তু আমাদের আছে টার্ক, আমাদের আছে ইন্টারন্যাশনাল লেভেলের পড়াশুনা, যার জন্য আমরা এনএসইউর থেকেও বেশি ফি দেই। কথায় কথায় ফ্ল্যাশমব না করে টার্কের হাওয়া বাতাস খাইলে আজ ওদের এই অবস্থা হইতো না। সাভারে আসুক ওরা, দেইখা নিবো।’

উত্তরে এনএসইউর ছাত্র সাদমান সাকিবও এক হাত দেন ইয়াসারকে। নিজের টাকিন ঠিক করে ওয়াকিটকি হাতে দিয়ে তিনি বলেন, ‘ওরা কী জানে যে, আমরা শুধু পড়াশুনা আর ক্যাম্পাসে আটকায় নাই। দুইবেলা স্টুডেন্টদের ইংলিশ শুনে আমাদের লিফটের দারোয়ানেরও আইএলটিএস স্কোর এখন ৮। যাচ্ছে কানাডা। আমরা ওদের থেকে সবদিক দিয়ে এগিয়ে।’

নিজের বক্তব্য শেষে তিনি তিনি ব্রাকের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘ডোন্ট কলড এনএসইউ, ইটস এন এস ইউ ব্রো।‘  

এদিকে এনএসইউর প্রতিবেশি ভার্সিটি আইইউবির এক চোখ লাল করা ছাত্র টলতে টলতে এসে বলেন, ‘আপনারা কার কী বড় আর বেশি তা নিয়া আর গেঞ্জাম কইরেন না। আমার সাথে আসেন, আমরা ঘাটপাড়ে গিয়ে সকলে মিলে শান্তিতে চিল করি।’

দুপক্ষের উদ্দেশ্যে শান্তির বাণী নিয়ে এসেছে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরাও। প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর এই অধপতন মানতে পারছেন না জানিয়ে ঢাকা কলেজের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘এভাবে মারামারি করা ঠিক নয়। ছাত্রদের ফেসবুকে এমন আক্রমনাত্মক কমেন্ট মানা যায় না। দেশটা কোথায় যাচ্ছে!’

৮৯০ পঠিত ... ১১:১৬, অক্টোবর ০৫, ২০২২

Top