একসাথে আটটি ডিম পাড়ার জন্য মুরগিকে আলটিমেটাম দিলেন ডিম-বিক্রেতা মিলন

৮৯৬ পঠিত ... ১৫:০৩, আগস্ট ১৭, ২০২২

Murgi-ke-ultimatam

ডিমের হালি এখন ৫০-৫২ টাকা। এই উচ্চমূল্যের মাশুল বেশিরভাগই দিচ্ছেন সাধারণ নিম্নবিত্ত পরিবার ও ব্যাচেলরেরা৷ মুরগীপালক ও ডিম বিক্রেতারাও তাদের মুরগীর উপর দিচ্ছেন বাড়তি ভীষণ চাপ। জানা গেছে সম্প্রতি বগুড়ায় মিলন (৪২) নামের এক ডিম-বিক্রেতা একসাথে আটটি ডিম পাড়ার জন্য মুরগিকে আলটিমেটাম দিয়েছেন। যদি মুরগিটি তিন দিনের মধ্যে একসাথে আটটি ডিম পাড়তে না পারে, তাহলে তিনি তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা নেবেন।  

এ ব্যাপারে মিলন জানান, ‘এই মুরগিই আমার জান প্রাণ সব। আমি বিয়েও করছি বহু দেরিতে, জীবনে বেশিরভাগ সময় মুরগির সাথেই কাটাতে চেয়েছি। আমার স্ত্রী আমাকে ডাকে মুরগি মিলন। নিজে না খায়া এই মুরগিগুলাকে খাওয়াইছি৷ অথচ দেখেন, এরা আমাকে কোনো প্রতিদানই দিলো না। দিনশেষে শুধু মানুষ না, মুরগিও স্বার্থপর...’

অবিশ্বাস্য ব্যাপার হচ্ছে মিলনের মুরগির খামার যেন জর্জ অরওয়েলের ‘অ্যানিম্যাল ফার্ম’উপন্যাসেরই একটি অংশ। এখানে মুরগিরা হাসতে পারে, কাঁদতে পারে, পাশের বাড়ির মুরগির সাথে আলাপও করতে পারে। মিলনের মুখে স্বার্থপর শোনার সাথে সাথে হুঁ হুঁ করে কেঁদে ওঠে মুরগীগুলো।

এ-সময় টিম লিডার মুরগি মন খারাপ করে বলে, ‘মিলন ভাই! এসব বলবেন না। আমরাও আপনাকে খুব ভালোবাসি। আমাদেরকে আরেকটা লাস্ট চান্স দেন...’

পাশ থেকে আরেকটি মুরগি বলে ওঠে, ‘গত পরশু রাতে চারটা পর্যন্ত পারছি। আজকে রাতে আবার ট্রাই করবো নে। আপনি এতো প্যারা নিয়েন না ভাই। সব ঠিক হয়ে যাবে।’

তবে মুরগিদের আশ্বাসে একদম মন গলেনি ডিম বিক্রেতা মিলনের। তিনি বলেন, ‘ফকিন্নির পুতেরা আজকেই তোদের লাস্ট চান্স। সকালে ঘুম থেকে উঠার পরে আটটা ডিম না দেখলে তোদেরকে রাইন্দা খাওয়ার ব্যবস্থা করতেছি। এক ডিম পাইড়াই খালি কক কক.. খাওয়ার বেলায় তো কম খাস না। শালা হিপোক্রেটের দল...’

৮৯৬ পঠিত ... ১৫:০৩, আগস্ট ১৭, ২০২২

Top