বিদেশি বিয়ে করে বিয়ের ১২ দিনেও ইউটিউব চ্যানেল না খোলায় ডিভোর্স দিচ্ছে কুমিল্লার কাশেমের

১৩৮২ পঠিত ... ২১:০৫, জানুয়ারি ০৬, ২০২২

bideshi-youtube-

নাতালিয়া-হাবিব, মারিয়া-শেহওয়ার, কিংবা নাম না জানা আরও অসংখ্য ভ্লগার কাপল ভ্লগারদের দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন কুমিল্লার কাশেম (১৫)। স্বপ্ন ছিলো বিদেশীনি বিয়ে করে কাপল ভ্লগার হবেন। এই স্বপ্ন দেখতে দেখতে একসময় পড়াশোনাও ছেড়ে দেন তিনি। কিন্তু ভাগ্য কি সবসময় সহায় হয়? স্বপ্নচূড়ায় পৌঁছেও রীতিমতো ছিটকে পড়ে গেলেন কাশেম।চলুন কুমিল্লা প্রতিনিধির কাছেই জেনে আসা যাক বিস্তারিত।

কুমিল্লার কাশেম তালুকদার। আটপৌরে মধ্যবিত্ত পরিবারের জন্ম হলেও স্বপ্ন তার আকাশ ছোঁয়া। ছোটবেলায় স্বপ্ন ছিলো ট্রাভেল ভ্লগার হবেন, সময়ের সাথে সাথে স্বপ্ন পরিবর্তিত এসে ঠেকে কাপল ভ্লগারে। দুই মাস আগেই প্রেমের টানে যুক্তরাষ্ট্র থেকে বাংলাদেশে আসে মার্কিন তরুণী সোফিয়া অ্যামিলি। ফেসবুকের পরিণয় অবশেষে ইতি ঘটে বিয়ের মাধ্যমে। তবে বিয়ের অর্ধমাস যেতে না যেতেই পারিবারিক টানাপোড়েনের মাঝে দিন কাটাচ্ছে কাশেম ও সোফিয়া।   

এ ব্যাপারে কাশেম তালুকদার eআরকি প্রতিনিধির সাথে সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘বা*র বিয়া করছি। এরকম হবে জানলে বিয়াই করতাম না। প্ল্যান ছিলো বাসর রাত থেকেই ভ্লগ আপলোড দিবো। এদিকে আমার সব প্রিপারেশন নেওয়া শেষ৷ বিদেশিদের মত বাংলা বলা প্র্যাক্টিস করছি, ইংরেজিতে কয়েক লাইন ভিডিও ইন্ট্রোডাকশনও মুখস্থ করছিলাম।সুফিয়াকে নিয়ে পড়ছি বিপদে। তার নাকি ভালো লাগে না, ইচ্ছা করে না, আরও কত কি! এরকম তুই আগে বলবি না? আরও হাজার হাজার বিদেশি মেয়ে ছিলো আইডিতে।তোরে দিয়া আমার কী লাভটা হইলো। কয়েকদিনের মধ্যেই ওরে ডিভোর্স দিতেছি...’ এতটুকু বলতে বলতে ক্রোধে ফেটে পড়েন কাশেম।    

এ সময় পরিবারের সবাই তাকে শান্ত করতে এলে কাশেমের মা বলেন, ‘আরে এক সুফিয়া যাবে, আরও বহু সুফিয়া আইবো। এবার আমরা অন্য দেশ থিকা আনমু.. চিন্তা নাই বাবা...’

১৩৮২ পঠিত ... ২১:০৫, জানুয়ারি ০৬, ২০২২

Top