IELTS এ ৬.৫ না পাওয়ায় কানাডা ঢুকতে দেইনি: জাস্টিন ট্রুডো

১০৩১ পঠিত ... ১৬:৫৯, ডিসেম্বর ১১, ২০২১

justin-murad-

সম্প্রতি মন্ত্রীত্ব হারানো মুরাদ হাসানকে কানাডায় ঢুকতে দেয়া হয়নি৷ জানা যায়, কানাডার নাগরিকদের কাছ পাওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে মুরাদ হাসানকে এয়ারপোর্টে জিজ্ঞাবাদের পর ফিরতি ফ্লাইটে আরব আমিরাত পাঠান কানাডার ইমিগ্রেন্ট পুলিশ৷

অফিশিয়ালি এ কথা শোনা গেলেও আসল কাহিনী অন্যকিছু বলে জানা যায়। IELTS স্কোর ৬.৫ না থাকায় ঢুকতে পারেননি কানাডায় ঢুকতে পারেননি মুরাদ। মুরাদের স্পিকিং খুব খারাপ বলেও জানা যায়৷ এ বিষয়ে স্বয়ং মুরাদ বলেন, 'হ আমার মুখ খারাপ।'

এদিকে নিজের ফেক আইডি থেকে জাস্টিন ট্রুডো বলেন, 'আমাদের দেশে আসার জন্য IELTS স্কোর মিনিমাম  ৬.৫ লাগে, তার যেহেতু নেই, আমরা পারমিশন দিতে পারছি না। দুঃখিত। তবে তার জন্য এমনিতে একটা শর্ট এক্সামের ব্যবস্থা করেছিলাম। সেখানেও ভালো করেননি তিনি..'

একটি খতিয়ে দেখা হলেই ট্রুডোর কথার সত্যতা পেয়েছে সাংবাদিকেরা। জানা যায়, বেশিরভাগ টেস্টে পাস করলেও ইংরেজি গালিতে গিয়ে ধরা খেয়েছেন মুরাদ৷ কানাডার এক ইমিগ্রেশন অফিসার বলেন, 'মাদার*দ, খা*কি, খা*কির পুত—এমন কিছু অদ্ভুত ভাষায় কথা বলেছেন উনি। এগুলো কোন দেশি ভাষা বুঝতে পারিনি দেখে ঢুকতে দেইনি৷'

মুরাদ বলেন, 'হ, কথা সত্য। মা*দারচোদের বাচ্চা গালি বুঝে না। আর আমিও তো গালিগুলার ইংরেজি জানি না।'

তবে আশা হারাননি মুরাদ হাসান।কানাডা থেকে ফিরে এসে নতুন করে আইলটিএস কোচিং এ ভর্তি হওয়ার কথা জানিয়ে মুরাদ বলেন, 'নাহিদের কাছে ইংরেজি শিখছিলাম। হালায় এক লাইন ইংরেজিতে শুরু কইরা পরে বাংলায় শেষ মারে। কোনো কাজই হয় নাই৷ অর্ধেক ইংরেজি বললে অর্ধেক বাংলা বের হয়ে যায়। এইবার যায়া ভালো কোনো উপস্থাপকের কাছে IELTS কোর্স করমু...’

১০৩১ পঠিত ... ১৬:৫৯, ডিসেম্বর ১১, ২০২১

Top