এক্সট্রাকশন টু সিনেমার ফার্স্টলুকে বুড়িগঙ্গার পানি পরিষ্কার দেখানোয় ক্ষুব্ধ ঢাকাবাসী

২২০ পঠিত ... ১৫:৩০, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১

extraction 2 protest

প্রথম পার্টে ঢাকাবাসীর তীব্র ভর্ৎসনার শিকার হওয়ার পর এক্সট্রাকশন মুভির দ্বিতীয় পার্টের ফার্স্টলুক প্রকাশ করলো নেটফ্লিক্স। কিন্তু এবারও ঢাকাবাসীর মন জয় করতে পারলো না তারা। এক্সট্রাকশন সিকুয়েলের ফার্স্টলুকে দেখা যায়, নায়ক ক্রিস ব্রিজ থেকে বুড়িগঙ্গায় পড়ে যায়৷ সেখানে বুড়িগঙ্গার পানি একদম ঝকঝকে ফকফকে, যাকে বলে একদম ক্রিস্টাল ক্লিয়ার৷ পানির নিচেও ক্রিসকে একদম পরিষ্কারভাবে দেখা যাচ্ছে। এ বিষয়টিই মানতে পারেনি ঢাকাবাসী৷

বুড়িগঙ্গার পানি যেখানে ব্ল্যাকহোলের ন্যয় ফকফকা কালো হওয়ার কথা, যে পানিতে পড়ার পর ক্যামেরা তো ক্যামেরা মানুষও ৩ দিন চোখে অন্ধকার ছাড়া আর কিছু দেখে না, সেখানে এমন পরিষ্কার পানি দেখিয়ে বুড়িগঙ্গার স্বকীয়তাকে অপমান করা হয়েছে... এমনটা দাবি করে নৌকা থেকে বুড়িগঙ্গায় তিনবার পড়ে যাওয়া এক পুরান ঢাকাবাসী বলেন, 'আমি ৩ বার বুড়িগঙ্গায় পড়েছি। কবরের অন্ধকার অনুভব করেছি৷ এত কালো! আমার জামা কালো মবিলে ভরে গেছিল৷ জামা নিগড়ে সেই মবিল দিয়ে আমি ট্রাক্টরও চালাইছি৷ আর ওরা বুড়িগঙ্গার এই ঐতিহ্যকে অস্বীকার করে বুড়িগঙ্গাকে অপমান করলো৷ এটা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।'

দূষিত বুড়িগঙ্গাকে পরিষ্কার দেখিয়ে ঢাকার ঐতিহ্যের অপমান করা হয়েছে জানিয়ে এক নগরবিদ বলেন, 'কোন নদীর পানি কালো? যে কাউরে জিগান সবাই বলে দিবে। পাশ্চাত্যের গ্ল্যামারাইজেশনের জন্য আমাদের ঐতিহ্যকে হারিয়ে যেতে দেবো না।'

বুড়িগঙ্গার আজকের এই রূপ-যৌবন একদিনে আসেনি৷ বছরের পর বছর ঢাকাবাসীর অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল আজকের ভ্রমর কালো বুড়িগঙ্গা। শত শত গ্যালন মবিল, ইন্ডাস্ট্রির মহামূল্যবান বর্জ্য, প্লাস্টিকসহ অসংখ্য ত্যাগ শিকার করেই ঢাকাবাসী আজকের দূষিত বুড়িগঙ্গা পেয়েছে৷ পাশাপাশি রয়েছে বিভিন্ন সময়ের সরকারের নদী রক্ষা কার্যক্রমের কঠোর অব্যস্থাপনা। এত এত পরিশ্রমকে এভাবে অপমান করায় বদলা নিতে চায় ঢাকাবাসীদের অনেকেই৷ যে কার্যক্রমের অংশ হিসেবে নেটফ্লিক্স সাবসক্রিপশন না কিনে টরেন্ট থেকে ডাউনলোড করে এক্সট্রাকশন টু দেখবে বলে জানায় প্রতিবাদমুখর জনতা৷

২২০ পঠিত ... ১৫:৩০, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১

Top