ভিকারুননিসার প্রিন্সিপালের কাছে গালি শিখতে চান ডিপজল ও কাজি মারুফ

১৭২৪ পঠিত ... ১৫:০৮, জুলাই ২৬, ২০২১

 

Dipjol-and-maruf-gali-shikhte-chay

বাংলাদেশের গালিশিল্পের অন্যতম দিকপাল ডিপজল ও কাজি মারুফ। গালিশিল্পের পাবলো পিকাসোও বলা হয় তাদের। সম্প্রতি ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের প্রিন্সিপাল কামরুন নাহারের একটি ফাঁস হওয়া ফোনালাপের পর নিজেদের গালি দক্ষতা নিয়ে নিজেরাই সন্দেহ প্রকাশ করেন কাজি মারুফ ও ডিপজল। আরো উচ্চতর জ্ঞানের জন্য ভিকারুননিসায় ভর্তি হয়ে প্রিন্সিপাল কামরুন নাহারের কাছে ক্লাসও করতে চান তারা।

তওবা করে দুই গালে দুইটা চড় দিয়ে নিজের ফেক আইডি থেকে ডিপজল বলেন, 'এতদিন কিয়ের ভিত্রে আছিলাম, দেশে গুরুজি থাকার পরও নিজেরে বহুত বড় গালিবাজ ভাইবা আসতেছিলাম। ভ্যানিটি ব্যাগে রাখা পিস্তল দিয়ে ম্যাডাম এখনো আমাগোরে পুত কইরা দেশছাড়া করে নাই এটাই আমাদের সাত জনমের ভাগ্য। ম্যাডামের কাছে গালি শিখে নিজেকে আরো সমৃদ্ধ করতে চাই। উন্নতবিশ্বে বাংলাদেশের নাম আরো উঁচুতে নিয়ে যেতে চাই।'

কাজি মারুফও কামরুল নাহারের নৈপুণ্য আর শৈল্পিকতার প্রশংসা করেন। নিজের ফেক আইডি থেকে মারুফ বলেন, 'কুত্তার বাচ্চা গাল আমিও দিতাম, উনিও দিছেন। কিন্তু ওনার গালির ফ্রিকোয়েন্সি, স্মুথনেস, তাল-লয়, গালি ডেলিভারি টেকনিক অন্য লেভেলের। সারা জীবন 'কুত্তার বাচ্চা' গালি দিলেও আমি ওই লেভেলে যেতে পারবো না। ওনার কাছ থেকে গালি শিখে নিজেকে চিরকৃতজ্ঞ রাখতে চাই।'

কামরুন নাহারের সাথে নিজের আদর্শিক মিলও খুঁজে পান কাজি মারুফ। নিজের ফেক আইডি থেকে তিনি বলেন, 'আমারও একটা কালো বন্দুক আছে। আমি সবসময় ওটা সাথে রাখি। ম্যাডাম নিজেও বালিশের নিচে, ভ্যানিটি ব্যাগে পিস্তল রাখেন। সত্যি কথা বলতে সৃষ্টিকর্তা ওনাকে আমাদের গালিদূত করে পাঠিয়েছেন। দেশের গালিশিল্পকে আরো অনেক দূর নিয়ে যাওয়ার জন্যই ওনার আগমন।'

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত অস্ট্রিয়ান গালিম্যান সেফুদাও নিজের মুগ্ধতার কথা জানান। কামরুন নাহারকে ভিকারুননিসার শিক্ষকতা বাদ দিয়ে একটা গালি ইন্সটিটিউট করার পরামর্শ দেন এই গালিবিদ।

১৭২৪ পঠিত ... ১৫:০৮, জুলাই ২৬, ২০২১

Top