সলিমুল্লাহ হলের নাম বদলাতে চায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষুব্ধ কিছু শিক্ষার্থী

১৬৮৬৫ পঠিত ... ১৯:৪৪, জুন ২৯, ২০২১

Salimullah-hall

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে ড. সলিমুল্লাহ খানের করা বক্তব্যে ক্ষেপেছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির কিছু শিক্ষার্থী। একটি সম্পূর্ণ 'চা, সিঙ্গারা, চপ' সরবরাহকারী সূত্র থেকে জানা যায়, এই ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের নামও পরিবর্তন করতে চায়।

এমন দাবির সাথে একাত্মতা পোষণ করা এক শিক্ষার্থী বলেন, 'এমন মন্তব্য করে জনাব সলিমুল্লাহ তিনি ঢাবির সম্মানে আঘাত করেছেন। এই আঘাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম পানি পানি হয়ে গেছে। এমন কথা বলার পর ওনার তো গণরুমেও জায়গা হওয়ার কথা না। অথচ উনার নামে আস্ত একটা হল দিয়ে বসে আছে।'

ক্ষুব্ধ অন্য এক শিক্ষার্থী বলেন, 'প্রয়োজনে হলের নাম কলিমুল্লাহ হল হবে কিংবা নামই থাকবে না, তাও এই লোকের নামের হলে আমাদের ক্যাম্পাসে থাকবে না।'

সলিমুল্লাহ খানের বক্তব্যের সমালোচনা করে এই শিক্ষার্থী বলেন, 'এখানে টিএসসি আছে, কনসার্ট হয়, ডিপার্টমেন্ট আছে, শিক্ষক আছে, রাজনীতি আছে, মারামারি আছে, কাউকে স্কুল ড্রেস পরতে হয় না, রেজিস্টার বিল্ডিং আছে, হল আছে, গণরুম আছে, র‍্যাগ আছে, ভিসি আছে, কার্জন আছে, চা-সিঙ্গারা-ছপ আছে, তাহলে উনি কীভাবে বলেন যে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্ববিদ্যালয় নয়!'

রুম থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগোওয়ালা টি-শার্ট, ক্যাপ ও ব্যাগ দেখিয়ে অন্য এক শিক্ষার্থী বলেন, 'এখানে ঢাকার পাশে স্পষ্টভাবে পাঁচ অক্ষরে 'বিশ্ববিদ্যালয়' লেখা আছে, ইংরেজিতে লেখা আছে 'ইউনিভার্সিটি'। তাহলে উনি কোন মুখে, কোন জ্ঞানে এমন কথা বলেন! নাকি চশমার পাওয়ার কমে গেছে!'

অন্য এক ভূয়া সূত্র থেকে জানা যায়, সলিমুল্লাহ খানের এমন বক্তব্যের ভিসি স্যার তাকে চা সিঙ্গারা ছপের দাওয়াত জানিয়েছেন। ভিসি স্যারের বরাত দিয়ে সূত্রটি জানায়, 'সলিমুল্লাহ খান সম্ভবত আমাদের এখানকার চা-সিঙ্গারা-ছপ খায় নাই। খাইলে উনি এমন কথা বলতে পারতেন না।'

তবে প্রতিক্রিয়াশীল এক শিক্ষার্থীকে আমরা 'এই সলিমুল্লাহ আসলে হলের সলিমুল্লাহ না' এই তথ্য জানালে তিনি পকেট থেকে নোটখাতা বের করে লিখে নিয়ে বলেন, 'ও আচ্ছা... টুকে রাখলাম, যদি বিসিএসে আসে...'

১৬৮৬৫ পঠিত ... ১৯:৪৪, জুন ২৯, ২০২১

Top