Lichur-Bichi
 
চলে এলো লিচুর মৌসুম। লিচুর মৌসুম মানে তো দুর্ঘটনা বেড়ে যাওয়ার মৌসুমও। অসাবধানতাবশত যেখানে সেখানে তেলাপোকা সদৃশ লিচুর বিচি ফেলে রাখার ফলে যেকোন সময় ঘটে যেতে পারে ভয়াবহ অঘটন। এমন অনাকাংক্ষিত ঘটনা এড়াতে লিচুপ্রেমীদেরকে যেখানে সেখানে লিচুর বিচি না ফেলার অনুরোধ জানিয়েছে তেলাপোকা হেটার্স কমিউনিটি।
 
নিজের জীবনের এক ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে তেলাপোকা হেটারদের সভাপতি তাসনুভা আহমেদ বলেন, 'গত বছরের কথা। রান্নাঘরে লিচি খেয়ে কে যেন বিচি রেখে গেছে। সেই বিচি দেখে ভয়ে এমন লাফ দিছিলাম, শুধু আমার চিবি ছিলো না দেখে ওগুলো কান্ধে উঠে নাই।'
 
ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে এ ধরণের ট্রমা থেকে মুক্ত রাখতে একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে বিচির বিষয়ে আরও দায়িত্বশীল হওয়ার আহবান জানান তারা। একজন বলেন, 'এমনিতে তেলাপোকার জ্বালায় সবসময় ট্রমাটাইজড হয়ে থাকি। তার মধ্যে এই কচি মনে যদি লিচির বিচির ভয়ও ঢুকে যায় তাহলে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম একটা ট্রমা নিয়ে বেড়ে উঠবে। যা কখনোই আমাদের কাম্য নয়।'
 
লিচিখোরদের উদ্দেশ্যে কমিউনিটির নেতারা বলেন, 'যেখানে সেখানে বিচি ফেলার অভ্যাস ত্যাগ করতে না পারলে বিচিও খেয়ে ফেলেন। কিংবা নিজেরটার সাথে রিপ্লেসও করে নিতে পারেন। তাও পুরো জাতিকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলবেন না।'
 
হেটার্স হলেও লিচির বিচির প্রতি নিজেদের সহমর্মিতার কথাও জানান তারা। পাশাপাশি অন্যদের মনেও সহমর্মী ভাব জাগানোর আহবান জানিয়ে তারা বলেন, 'শুধু একবার ভাবেন, আপনার চিবি দেখে কেউ একজন ভয় পেয়ে সেই চিবিকে জুতা দিয়ে, খুন্তি দিয়ে, রড দিয়ে কিংবা ঝাঁড়ু দিয়ে একটা বাড়ি দিয়েছে! কেমন লাগবে আপনার? তেলাপোকা ভেবে লিচির বিচিকে এভাবে আঘাত করলে তাদেরও এমন লাগে। সো, নিজে বাঁচুন অন্যকে বাঁচান। যেখানে সেখানে বিচি ফেলে দিবেন না।'