মাস্ক পরে অন্যের ভোট দেয়া বাংলাদেশি ভোটারকে বিশেষ সম্মাননা জানাবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

৩৬০ পঠিত ... ১৬:১৪, জানুয়ারি ১৭, ২০২১

শেরপুর পৌরসভা নির্বাচনে মাস্ক পরে অন্যের ভোট দিতে এসে ধরা পড়ে আবু সাঈদ নামের এক ভোটার। এই অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়।

দেশীয় আদালত কারাদন্ড দিলেও মাস্কের এমন যুগোপযোগী ব্যবহার পদ্ধতি আবিষ্কার করায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আবু সাঈদকে বিশেষ সম্মাননা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

বাংলাদেশের নির্বাচন ব্যবস্থাকে বিশ্বের মধ্যে অনন্য বলে আখ্যা দিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়, 'মাস্কের এমন সুবিধার কথা আমরাও জানতাম না। বাংলাদেশের নির্বাচন আসলেই অনন্য ও অসাধারণ।'

বাংলাদেশের নির্বাচনের দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে বলা হয়, 'বাংলাদেশে নির্বাচন যতদিন থাকবে, ততদিন বিশ্ববাসী মাস্কের এমন নতুন নতুন ব্যবহার সম্পর্কে জানবে। আমরা মুগ্ধ। মুগ্ধতায় আমরাও বাংলাদেশের নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ বলে ঘোষণা করলাম।'

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে আরো বলা হয়, 'আপনারা জানেন, করোনা আরো অনেকদিন থাকবে। সেজন্য আমরা চাই মানুষ মাস্ক পরুক। কিন্তু মাস্কের নিত্য নতুন প্রয়োজনীয়তা তৈরি না হলে মানুষ কিছুদিন পর আর মাস্ক পরবেই না। বাংলাদেশের নির্বাচন এই চিন্তা থেকে আমাদের মুক্তি দিয়েছে। আমরা বাংলাদেশের মানুষকে অনুরোধ করবো, আপনারা প্রয়োজনে অন্যের ভোট দেন, তাও মাস্ক পরেন।'

কর্মীর পাশাপাশি দলকেও সম্মাননা দেয়ার উদ্দেশ্যে মাস্ক পরে ভোট দেয়া এই কর্মীর রাজনৈতিক পরিচয় জানতে চায় WHO। আবু সাঈদকে বিএনপি কর্মী দাবি করে বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়, 'এই কর্মী নিশ্চিত আমাদের। আওয়ামী লীগের হলে মাস্ক পরার দরকার হতো না।'

৩৬০ পঠিত ... ১৬:১৪, জানুয়ারি ১৭, ২০২১

Top