অ্যালকোহল হারাম হওয়ায় রসায়ন থেকে জৈব যৌগ অধ্যায় বাদ দেয়ার দাবি

৩৬৯৮ পঠিত ... ১৪:৪১, ডিসেম্বর ০৫, ২০২০

ইলুমিনাতি সন্দেহে ত্রিকোণমিতি বাদ দেয়ার দাবি তোলার পর এবার একদল সচেতন নাগরিক মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিকসহ সর্বস্তরের রসায়ন বিজ্ঞান পাঠ্যক্রম থেকে জৈব যৌগ অধ্যায় বাদ দেয়ার দাবি তুলেছে। জৈব যৌগ অধ্যায়ে হারাম বস্তু অ্যালকোহলের উপস্থিতির কারণে এমন দাবি তুলেছে তারা।

পড়ালেখার মধ্যে মদ বা অ্যালকোহল ঢুকিয়ে দেয়াকে বিজাতীয় সংস্কৃতির প্রভাব বলেও আখ্যা দেন তারা। তারা বলেন, 'সৌদি আরব, আরব আমিরাত, ইরাক, ইরানসহ কোন দেশের পড়ালেখাতেই এইসব মদ টদ বানানোর সিস্টেম নাই। পশ্চিমারা আমাদের দেশের যুবকদের চরিত্র নষ্ট করার জন্য কৌশলে পড়ালেখার মধ্যে এইসব ঢুকিয়ে দিয়েছে।'

বাঙালিকে বেকুব আখ্যা দিয়ে একজন বলেন, 'অ্যালকোহল মানে মদ। ওই পশ্চিমারা মনে করেছিলো এইটা আমরা জানি না। মদরে সুন্দর কইরা অ্যালকোহল নাম দিয়াই বেকুব বাঙালিরে ভুলাইয়া রাখা যাইবো।' অ্যালকোহলের এই আসল নাম ১ বছর অক্লান্ত গবেষণা করে তারপর বের করেছেন বলেও জানান তিনি।

উত্তেজিত হয়ে কয়েকবার উচ্চস্বরে 'হারাম, হারাম' রব তুলে দাবিকৃত একজন বলেন, পড়ালেখার ভিত্রে মদ আইলো ক্যামনে? বইপত্রে এইসব অ্যালকোহল নিয়ে পড়ে এরপর পোলাপান মদ বানানোর সিস্টেম জানবো, 'এরপর মদ খাইবো। এভাবেই ধ্বংসের দিকে আগাইয়া যাইবো।'

সারা দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা এমন দাবির পক্ষে সমর্থন জানাবেন বলেও খবর পাওয়া গেছে। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সমর্থকদের এক প্রতিনিধি eআরকিকে বলেন, 'জৈবযৌগের পাশাপাশি হাইড্রোকার্বন অধ্যায় বাদ দেয়ার দাবিও আমরা যুক্ত করবো।'

অন্য এক পক্ষ পুরো রসায়ন বিজ্ঞান বিষয়টাই বাদ দিয়ে দেয়ার পক্ষে দাবি তুলে বলেন, 'এই ছাতার মাথা রসায়ন পইড়া আসলে হইবটা কী!'

৩৬৯৮ পঠিত ... ১৪:৪১, ডিসেম্বর ০৫, ২০২০

Top