কারাগারে একটা টকশো চালু করলে যাবজ্জীবন বড় বড় কথা বলে যেতে পারবো: সাহেদ

৩৭৪ পঠিত ... ২০:১৬, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

অস্ত্র মামলায় মাত্র ২ মাস ৯ দিনের মাথাতেই যাবজ্জীবন সাজা পেলেন রিজেন্ট কান্ডের জনক সাহেদ। এমন সাজার পর স্বভাবতই জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে সাহেদকে।

যে জেলেই প্রেরণ করা হোক না কেন, কারা কর্তৃপক্ষের কাছে জেলখানায় টকশো চালু করার অনুরোধ করলেন সাহেদ। জেলে থাকুক বা বাইরে, নির্বিঘ্নে বড় বড় কথা বলে যেতেই সাহেদের এমন অনুরোধ।

সাহেদ বলেন, 'সারাজীবনই তো টুকটাক অপরাধ করছি। ওই সময়ে এই অপরাধী জীবন কাটাতে টকশোর বড় বড় কথা আমাকে সাহায্য করেছে। বাকি জীবনের এই জেল যাপনেই আমার সঙ্গী এই বড় বড় কথাই। নইলে এত লম্বা সময়তো কাটাতে পারবো না।'

বাসা থেকে স্যুট টাই আনার অনুমতির আবেদনও করেন সাহেদ। তিনি বলেন, 'জেলখানার জামা পরেতো আসলে টকশো হয় না। তার উপর ধরা খাওয়ার সময় লগে ছিলো বোরখা। টকশোর সাথে এটাও ঠিক যায় না। স্যুট-টাই গুলোতো পড়েই থাকবে। আনার অনুমতি দিন প্লিজ।'

কারা কর্তৃপক্ষ সাহেদ এমন অনুরোধ রাখবেন কি না? জানতে চাইলে তারা বলেন, 'রাখা যায়। একটু বিনোদনের, মোটিভেশনের, নীতি কথারও দরকার আছে জীবনে। সারাজীবন অপরাধীদের আশেপাশে থাকার কিছুটা রিলিফ পাওয়া যাবে এতে।'

তবে এই সুবিধা দেওয়ার পাশাপাশি সাহেদের সাথে একটু ছবি তোলার অনুরোধ করেন কারা কর্তৃপক্ষ। তারা বলেন, 'আমরা তো ছবি তুলবোই। আগের আসামিরাও একটু অনুরোধ করলো। কতদিন পর একজন মডেল অপরাধী আসছে। সবার একটা সখ আর কি!'

৩৭৪ পঠিত ... ২০:১৬, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

Top