নৌকা চালানো ছেড়ে ড্রাইভিং শিখছে পদ্মার কুবের মাঝি

৪৬৭ পঠিত ... ১৪:৪৬, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

উন্নত জীবনের আশায় নৌকা চালানো বাদ দিয়ে ড্রাইভিং শিখছেন পদ্মানদীর কুবের মাঝি। ড্রাইভিং শেখার পাশাপাশি হোসেন মিয়ার ময়নাদ্বীপ স্বাস্থ্য অধিদফতরে ড্রাইভিং এর চাকরির আবেদনও করেছেন কুবের।
 
চাকরি হয়ে গেলে ময়নাদ্বীপে চলে যাবেন এমনটা জানিয়ে কুবের বলেন, 'গরিবের মধ্যেও গরিব, ছোটলোকের মধ্যেও ছোটলোকের জীবন আর কত! ময়নাদ্বীপে ড্রাইভারের চাকরিটা পাইলেই বাড়ি গাড়ি করে সেটেল হইয়া যামু। এরপর আমি হমু বড়লোকের মধ্যেও আবদুল মালেক'।
 
সাথে কপিলা ও মালাকে নিয়ে যাওয়ার আশা ব্যক্ত করে কুবের বলেন, 'কপিলাডা আমার লগে থাকতে চায়, একখান ভালা ঘর নাই, হেরলাইগা ওরে নিতে পারিনা। ড্রাইভিং শিখ্যা ময়নাদ্বীপে চাকরি হইলে একটা বাড়িতে কপিলাকে রাখুম, একটায় মালারে, বাকি যেকয়ডা বাড়ি খালি থাকবো ওগুলার লিগা দরকার হইলে আরো কয়েকটা বিয়া করুম।'
 
মালার জন্য একটা হুইলচেয়ারের পাশাপাশি, একটা গাড়ি, একটা স্পেশাল কমোড কিনবেন বলেও জানান কুবের। কপিলার জন্যও আলাদা করে গাড়ি কিনবেন বলেও জানান।
ড্রাইভিং শিখে চাকরি পেলেই বড়লোক হতে পারবেন কিনা? এমন প্রশ্নে কুবের বলেন, পারুম। মালেক ভাইয়ের মেন্টরদের কাছ থিকা পরামর্শ নিমু। তাছাড়া ধনঞ্জয়ের নৌকা থেকে মাছ চুরি, হোসেন মিয়ার পকেট থেকে টাকা সরানোর অভিজ্ঞতা তো আমার আছেই। খালি মালেক ভাইরে যারা সাহস দিতো তারা একটু কাঁধে হাত রাখলেই আল্লার নাম নিয়া কাম সাইরা ফেলবো।'
৪৬৭ পঠিত ... ১৪:৪৬, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

Top