কোমা থেকেই উঠে গেলেন মাইকেল শুমাখার, আবেদন করলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ড্রাইভিং পদে

৭১৫ পঠিত ... ১৬:৫৯, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০

স্বাস্থ্য অধিদফতরের শতকোটি টাকার মালিক ড্রাইভার মালেকের অঢেল ধন সম্পত্তির কথা শুনে কোমা থেকে উঠে দাঁড়ালেন ফর্মুলা ওয়ানের ৭ বারের চ্যাম্পিয়ন রেসার মাইকেল শুমাখার। কোমা থেকে উঠে সাথে সাথেই আবেদন করলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ড্রাইভিং পদের জন্য।

সর্বকালের সেরা এই ফর্মুলা ওয়ান রেসার জীবনে সফলতার জন্য অনেক অধ্যবসায় করেছেন। রেসিং ট্র‍্যাকেই কাটিয়েছেন জীবনের বেশিরভাগ সময়। সর্বকালের সেরা হওয়া, সাতবারের চ্যাম্পিয়ন মুকুট আর অসংখ্য মানুষের আইডল হওয়ার সৌভাগ্য তো তার রয়েছেই। তবে গতকাল স্বাস্থ্য অধিদফতরের কোটিপতি ড্রাইভার মালেকের খবর জানতে পেরে এসব কিছুই তার কাছে অর্থহীন লাগছে।

মার্সেডিজ, ফেরারির মতো বিশ্ববিখ্যাত গাড়ি নিয়ে দাপিয়ে বেড়ানো এই রেসার বলেন, 'এবার একটু স্বাস্থ্য অধিদফতরের গাড়ির ড্রাইভিং সিটে বসতে চাই। বিশেষ করে মালেক স্যার যে সিটে বসতেন ওই সিটেই।'

বাংলাদেশি ড্রাইভিং লাইসেন্স বানাতে দেয়া এই রেসার বলেন, 'শুধুমাত্র ড্রাইভিং করেই যে শতকোটি টাকা, অঢেল ধনসম্পত্তির মালিক হওয়া যায়, মালেক স্যার তা দেখিয়েছেন।'

মালেক স্যারের সাথে দেখা করার আগ্রহ প্রকাশ করার পাশাপাশি শুমাখার বলেন, 'বাংলাদেশ স্বাস্থ্য অধিদফতরকে স্যালুট। ডিজির ব্যক্তিগত ড্রাইভারকে এত সম্মান, এত মর্যাদা, এত সুবিধা পৃথিবীর কোন সংস্থা দিতে পারেনি, পারবেও না। এই সংস্থায় চাকরি পেলে নিজেকে ধন্য মনে করবো।'

এছাড়াও এত বছরের চিকিৎসার খরচ রিকভার করতে এমন একটি পেশাই খুজছিলেন বলে কানে কানে জানান এই চ্যাম্পিয়ন রেসার।

বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদফতরের পাশাপাশি বাংলাদেশের সরকারি সংস্থাগুলোকে পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ কর্মীবান্ধব সংস্থা বলেও আখ্যা দেন মাইকেল শুমাখার। তিনি বলেন, 'এখানে কোন বৈষম্য নেই। বড় কর্তারাও বেতনের পাশাপাশি কোটি টাকা কামান, সমান টাকা কামান ড্রাইভার, পিয়নরাও।'

৭১৫ পঠিত ... ১৬:৫৯, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০

Top